শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এবং রাজ্য সরকারের সঙ্গে সংঘাতের মধ্যেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের উইকিপিডিয়া পেজ-এর তথ্য বদলে দেওয়া হলো। সেখানে তথ্য বিকৃত করে তাঁকে 'পদ্মপাল' বলে মন্তব্য করা হয়েছে। এ ছাড়াও একাধিক ব্যঙ্গাত্মক এবং অবমাননাকর মন্তব্য করা হয়েছে রাজ্যপালকে নিয়ে। কে বা কারা রাজ্যপালের উইকিপিডা পেজ এ ভাবে  বিকৃত করল তা এখনও স্পষ্ট নয়। 

জগদীপ ধনখড়ের উইকিপিডিয়া পেজ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযযায়ী, ১৩ জানুয়ারি ভোর রাত ৩.০৫ মিনিটে শেষ বার এই পেজটি এডিট করা হয়েছে। সম্ভবত তখনই ওই পেজ- এ তথ্য বিকৃতি করা হয়ে থাকতে পারে। এ দিন সকাল পর্যন্ত ওই বিকৃত তথ্যই জগদীপ ধনখড়ের উইকিপিডিয়া পেজ- এ দেখা গিয়েছে। 

তথ্য বিকৃতি ঘটিয়ে রাজ্যপালকে 'কমেডিয়ান' বলে উল্লেখ করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, তাঁকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য বলে দাবি করা হয়েছে। রাজ্যের শাসক দলের নেতারা তাঁকে 'পদ্মপাল' বলে কটাক্ষ করেন। উইকিপিডিয়া পেজ- এও তাই বলেই কটাক্ষ করা হয়েছে ধনখড়কে। তাঁর বিখ্যাত উক্তি হিসেবে দেওয়া হয়েছে, 'আমি অপমানিত হয়েছি।'

কটাক্ষ করে লেখা হয়েছে, তাঁর অনুমতি না নিয়ে শীত পড়ে যাওয়াতেও রাজ্যপাল অপমানিত বোধ করেছেন। পশ্চিমবঙ্গের নাগরিকরা তাঁকে ২০১৯ সালের 'বর্ষসেরা অপমানিত ব্যক্তি'- র পুরস্কার দিয়েছেন বলেও উল্লেখ করা হয়েছে তাঁর উইকিপিডিয়া পেজ-এ।

এখানেই শেষ নয়, তাঁর পেশাদারি এবং রাজনৈতিক জীবনের ব্যাখ্যা দিয়ে উইকিপিডিয়া পেজ-এ দেওয়া তথ্যকেও বিকৃত করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, নিজেকে লর্ড কার্জন-এর বংশধর হিসেবে দাবি করতে পছন্দ করেন জগদীপ ধনখড়। বঙ্গভঙ্গের দিনটিকে নিজের জন্মদিনের থেকেও বেশি করে পালন করেন তিনি। 'শিক্ষা'-র জায়গায় লিখে দেওয়া হয়েছে 'অশিক্ষা'।