শরীর থাকলে অসুখ করবেই। জ্বর, মাথা ব্যথা, বমি, পেটের অসুখ এসব নিয়েই চলতে হয়। তবে চেষ্টা করতে হবে এই ধরনের অসুখের জন্য যতটা পারা যায় কম বাজারি ওষুধ খাওয়া যায়। 

প্রাচীন কালে এই সব রোগের চিকিৎসা হতো প্রাকৃতিক টোটকাতেই। তাই যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলতে হবে কেমিক্যাল জাতীয় জিনিস। হঠাৎ হঠাৎ অনেকেরই বমি ভাবের সমস্যা হয়। বিশেষ করে যাদের খাবার হজমে অসুবিধা রয়েছে, তাদের এই প্রবণতা দেখা যায়। কিন্তু এই বমি ভাব বা গা গুলানোর সমস্যার জন্য ওষুধের বদলে একটু দারচিনি দেওয়া জল খেতে পারেন। 

এক জাতীয় হেলথ ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, এক গ্লাস দারচিনি মেশানো জল খেলেই মিটতে পারে বমি ভাব ও পেট খারাপের মতো রোগ। 

তবে খাওয়ার কিছু নিয়ম আছে। এক গ্লাস জলে দারচিনি ভিজিয়ে সারা রাত রেখে দিন। পরের দিন সকালে উঠে জল খান। এতে অম্বলের সমস্যা কমে। 

দারচিনি ভেজানো জল খেতে ভাল না লাগলে অন্য ভাবে খেতে পারেন। এতে দারচিনি দিয়ে চা বানিয়ে খান। বমি ভাব থেকে রেহাই পাবেন। এছাড়া, খুব তেলাক্ত খাবার খাওয়ার পরে একটু  দারচিনি খেলে অস্বস্তি হয়  না। 

কিন্তু কেন দারচিনি! দারচিনি তো সাধারণত মশলাদার খাবারে স্বাদ বাড়াতে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু আয়ুর্বেদে বলা হচ্ছে, দারচিনি মহৌষোধির মতো কাজ করে। পেট ঠান্ডা রাখতেও এর জুড়ি মেলা ভার। যাদের মোশন সিকনেস বা গাড়িতে যাতায়াত করতে গিয়ে বমি পায়, তাঁরা ব্যাগে রাখুন দারচিনি।