চোখ দিয়ে জল পড়ছে,  আবার কখনও অসহ্য মাথাব্যথা-পড়তে বসলেই হাজারো বায়নাক্কা,একাধিক অভিযোগ আসছে সন্তানদের থেকে। প্রথম প্রথম দুষ্টুমি, ফাকিবাজি ভেবে উড়িয়ে দিচ্ছিলেন অভিভাবকেরা। কিন্তু যত দিন যাচ্ছে  সমস্যা যেন ততই বাড়ছে।করোনার প্রকোপ থেকে বাঁচতে বেশিরভাগ  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই অনলাইনে ক্লাস শুরু করেছে। অফিস থেকে স্কুল-কলেজ সবকিছুই চলছে অনলাইনে।

আরও পড়ুন-১ কোটির মালিক হতে চান, আকর্ষণীয় সুযোগ দিচ্ছে এই সংস্থা...

অনলাইনে পড়াশোনা করতে গিয়ে অভিভাবকরা নাজেহাল হয়ে পড়ছেন। বড়রা নয়  পুরো বিষয়টি সামলে নিলেও  অনলাইনে পড়াশোনার চক্করে নাজেহাল হয়ে পড়েছে খুদেরা । একটানা অনলাইনে পড়তে গিয়ে মনঃসংযোগ দিতে পারছে না অনেকেই। এই নিয়ে বিভ্রান্ত বাবা-মায়েরা। চোখ জ্বালা থেকে চোখ দিয়ে একনাগাড়ে জল পড়া নানা  সমস্যায় পড়েছে খুদেরা। মোবাইল, কম্পিউটারে গেম খেলার সঙ্গে সঙ্গে অনলাইনে ক্লাস ঝক্কি বেড়েছে। 

 

ঘন্টার পর ঘন্টা একনাগাড়ে চলছে ক্লাস। আর ঠাঁই ল্যাপটপ কিংবা কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে বসে থাকতেই বিপদ বাড়ছে ক্রমশ।  কিন্তু ক্লাস তো বন্ধ করা যাবে না, তাহলে উপায়। চক্ষু বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, একটানা কম্পিউটারে বসার সময় অনেকেই চোখের পাতা ফেলতে ভুলতে যায়, এতেই সমস্যা বাড়ছে। তাই পড়াশোনা করতে করতে বারবার চোখের পাতা ফেলার পারমর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। কাজ হয়ে গেলে, আধঘন্টা চোখ বন্ধ করে রাখুন। তারপর ভাল করে চোখে জলের ঝাপটা দিয়ে সবুজ কিছুর দিকে তাকালে চোখে আরাম লাগে। এছাড়া ছাদে উঠে দূরের কোনও কিছুর দিকেও তাকালে এই সমস্যা কমে যাবে। তবে একটানা কাজ করতে করতে ভুল করেও  একভাবে তাকানো যাবে না। এতে সমস্যা তো কমবে না, উল্টে চোখের সমস্যা আরও জটিল থেকে জটিলতর হবে।