রেগে গেলে কি আপনি দুবার্শা মুণির চেয়েও ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করেন! এমনিতে আপনি খুবই মিষ্টি ও মিশুকে স্বভাবের। ঠান্ডা মাথায় যখন থাকেন, বন্ধুরা বিভিন্ন বিষয়ে আপনার থেকে পরামর্শ নেন। কিন্তু রেগে গেলে নিজেকেই চিনতে পারেন না। এমন কাণ্ড ঘটান যা নিজে শান্ত মাথায় ভাবলেই আঁতকে উঠবেন। বোধ বুদ্ধি লোপ পেয়ে আপনি যেন তখন কোনও বন্য পশু। 

এমন রাগ শরীর মন কিছুর জন্যই ভাল নয়। রেগে গিয়ে এমন কাজ করলে সারা জীবন তার জন্য় মাশুল গুনতে হয়। তাই রাগ যে জীবনে অন্ধকার নিয়ে আসতে পারে তা আর নতুন করে বলার নেই। তবে কয়েকটি খাবার আছে যা নিয়মিত খেলে রাগ কমতে পারে। দাবি করছেন বিশেষজ্ঞরাই। জেনে নেওয়া যাক ঠিক কোন খাবারগুলি খেলে রাগ কমতে পারে- 


১) আইসক্রিম- মেজাজ খারাপ থাকলে যে কোনও বিষয়েই চট করে মাথা গরম হতে পারে। তাই মেজাজ ভাল রাখতে আইসক্রিম খান। আইসক্রিম থ্রমবোটনিন হরমোন ক্ষরণ করতে সাহায্য করে। এই হরমোন ক্ষরণে মন তরতাজা ও খুশি থাকে। মুড সুইং এর ক্ষেত্রেও আইসক্রিম খেতে পারেন। 

২) চকোলেট- যাঁরা চট করে রেগে যান তাঁরা অ্যংজাইটি-তেও ভোগেন। তাঁরা চকোলেট খেতে পারেন। চকোলেট স্ট্রেস হরমোন কমায়। ফলে মাথা শান্ত থাকে। ডার্ক চকোলেট খেলে আরও ভাল ফল পাওয়া যায়। চকোলেটও  মুড সুইং-এর জন্য ভাল। 

৩)গ্রিন টি- গ্রিন-টি স্বাস্থ্যের পক্ষে কতটা উপকারী তা অনেকেরই জানা। মাথা ঠান্ডা রাখতেও কার্যকরী। কোনও দিন মেজাজ খারাপ থাকার জন্য যদি কাজে মন না দিতে পারেন, তা হলে এক কাপ গ্রিন টি খেয়ে নিন। এতে মাথা শান্ত হবে। সঙ্গে গ্রিন টি ত্বকও ভাল রাখে।  

৪) আপেল ও পিনাট বাটার- আপেলে কার্বহাইড্রেট থাকে আর পিনাট বাটার ফ্যাট-সমৃ্দ্ধ। এই দুইয়ের মিশেলে কমতে পারে রাগ। তাই আপেলের সঙ্গে পিনাট বাটার খেতেই পারেন।

৫) আলু- আলুতে কার্বহাইড্রেট ও ভিটামিন বি থাকে, যা রক্তচাপ কমায় ও স্ট্রেস কমায়। তাই ডায়েটে আলু রাখুন। ভাল ফল পাওয়ার জন্য সেদ্ধ আলু খান।

৬) কলা- কলা এমন একটি ফল যাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি ও পটাশিয়াম থাকে। এই দুই উপাদান স্নায়ুকে শান্ত করে। ফলে চট করে রেগে যাওয়ার প্রবণতাও কমে যায়।