শীতকাল আসা মানেই ধনেপাতার জুড়ি মেলা ভার। অনেকেই ভাবেন রান্নার স্বাদ বাড়াতেই ধনেপাতাকে ব্যবহার করা হয়। রান্নার মধ্যে ধনেপাতা দিলেই রান্নার গুণ নাকি কয়েকগুণ বেড়ে যায়। কিন্তু রান্নার স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যা দূর করতে উপকারী এই ধনেপাতা। ধনেপাতা দিয়ে বিভিন্ন রকমের এক্সপেরিমেন্টাল রান্না সবসময়েই ট্রাই করে থাকেন বাঙালিরা। স্বাদেও যেমন সুস্বাদু তেমনই প্রচুর গুণও রয়েছে ধনেপাতার। জেনে নিন ধনেপাতার কয়েকটি অজানা স্বাস্থ্যগুণ।

আরও পড়ুন-ত্বকে বয়সের ছাপ ও বলিরেখা এড়াতে, এই টোটকা কাজ করবে ম্যাজিকের মত...


ধনেপাতার স্বাস্থ্যগুণ

ধনেপাতা রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

দাঁত ও মাড়ির সুস্থতায় ধনেপাতা অত্যন্ত কার্যকরী। দাঁতের ফাকে যে ব্যাকটেরিয়া জমে তা জমতে দেয় না ধনেপাতা। যার ফলে দাঁত ও মাড়ি সুস্থ থাকে।

লিভার ও যকৃতকে সুস্থ রাখতে ধনেপাতা অত্যন্ত কার্যকরী। ভেষজ উপাদান হিসেবে ধনেপাতার অনের গুণ রয়েছে।

নিয়মিত ধনেপাতা খেলে লিভারের একাধিক সমস্যা থেকে শরীরকে সুস্থ রাখা যায়।

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীদের জন্যও ধনেপাতা অত্যন্ত কার্যকরী।

রক্তে ইনসুলিনের ভারসাম্য বজায় থাকে, এবং শর্করার পরিমাণ বৃদ্ধি করে ধনেপাতা।

ধনেপাতার মধ্যে সিনিওল এসেনশিয়াব অয়েল এবং লিনোলিক অ্যাসিড থাকে।

আরও পড়ুন-মানব সভ্যতার ইতিহাসে আজ একটি ঐতিহাসিক দিন, জানুন সেই কাহিনি...

ধনেপাতার মধ্যে থাকা আয়রণ রক্তাল্পতা রোধ করতে সাহায্য করে।

পুরোনো কোনও ব্যথা কমাতেও ধনেপাতা কার্যকরী।

ধনেপাতার মধ্যে অ্যান্টিসেপটিক উপাদান থাকায় শরীর থেকে টক্সিন দূর করতে বিশেষ সাহায্য করে।

অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ফাঙ্গাল উপাদান রয়েছে ধনেপাতায়। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ধনেপাতা খেলে চর্মরোগ থেকেও নিস্তার পাওয়া যায়