বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গেই কম যায় কোষের কার্যক্ষমতা। এর চিহ্ন সবার আগে ফুটে ওঠে ত্বকে। বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এনজাইমও কাজ করা বন্ধ করে দেয়। এই সময়ে ত্বকে ফুটে ওঠে বলিরেখা। বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গেই এই সমস্যা বৃদ্ধি পায়। বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গেই এই ধরণের সমস্যা বাড়তে থাকে। আর অকালে বলিরেখা আপনার সৌন্দর্য নষ্ট করে দেয় সহজেই। বিশেষ করে এই সুক্ষ্ম দাগ বা ভাঁজগুলি লক্ষ্য করা যায় চোখের কোনে, কপালে ও ঠোঁটের পাশে। তাই যথা সময়ে এর ব্যবস্থা না নিলে, দ্রুত বয়সের ছাঁপ দেখা দেবে চেহাড়ায়। তাই সহজ এই উপায়ে জেনে নিন কীভাবে ধরে রাখবেন ত্বকের জৌলুস। যাতে বয়স বাড়লেও তা চেহাড়ায় ধরা না পড়ে।

আরও পড়ুন- শীতকালে টক দই খাচ্ছেন, খাওয়ার আগে জেনে নিন এই বিষয়গুলি

ত্বকের বলিরেখা দূর করতে সবচেয়ে কার্যকর জোজোবা অয়েল। এই অয়েল ত্বকের বলিরেখা দূর করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি এই একটি উপাদানের সাহায্য আপনি ত্বকের ক্লিনজিং ও ময়েশ্চারাইজিং দুই করতে পারবেন। পাশাপাশি ত্বক টানটান রাখতেও সাহায্য করে এই অয়েল।

বলিরেখা দূর করতে আরও একটি কার্যকারী উপাদান হল গ্রীন টি। এই চায়ের উপকারীতা আমাদের সকলেরই জানা। ফ্যাট বার্ন থেকে শুরু করে ত্বকের যত্ন, সবেতেই কার্যকর এই চা। প্রতিদিন দু থেকে তিন বা গ্রীন টি পান করলে শরীর থেতে টক্সিং বের করে দেয়। এই টি শরীরকে ডি হাইড্রেট করতেও সাহায্য করে। তাই সুন্দর ত্বক পেতে চায়ের অভ্যাস বদলে গ্রীন টি পান করুন।

আরও পড়ুন- নিজেকে সুন্দর রাখতে চান, ভুলেও লাগাবেন না এই জিনিসগুলি

আরও একটি ফল আপনার বলিরেখার সমস্যা দূর করে দারুন ফল দেবে তা হল বেদানা। এই ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। একই সঙ্গে ত্বকের শিথিলতা কাটিয়ে ত্বক টানটান রাখতেও সাহায্য করে বেদানা। এছাড়া ত্বকে কালো ছোপ দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতেও সাহায্য করে বেদানা। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় শুধু এই তিন পরিবর্তন আপনার ত্বকের জৌলুস ধরে রাখতে সাহায্য করবে। বয়স বৃদ্ধির প্রমাণ ত্বকে আসতে দেবে না।