বর্ষা ঢুকলেও বৃষ্টির মুখ এখনও ভালো করে দেখেনি বাঙালি। বর্ষা শুধু গরম থেকেই রেহাই দেয় না। বাঙালির কাছে বর্ষা মানেই পাতে ডিম ভরা ইলিশের পেটি। ভাপা ইলিশ হোক বা ভাজা ইলিশ, ওজন কত বাড়ল বা পেট ঠিক থাকলো কি না সব ভুলে এই সময়ে ইলিশ যাপন করে বাঙালি। 

কিন্তু যেহেতু এখনও সেভাবে বৃষ্টি হয়নি, তাই বাঙালি সেভাবে ইলিশ-সুখ পাচ্ছে না। কিন্তু ইতিমধ্যেই কলকাতার বেশ কিছু বাজারে বিকোচ্ছে ইলিশ মাছ। তবে তার দাম যে বেশ আকাশছোঁয়া তা বলাই বাহুল্য়। 

কলকাতার বাজারগুলিতে ৩০০ থেকে ৪০০ গ্রামের ইলিশ মাছগুলি বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে ৫৫০ টাকার মধ্য়ে। আর একটু বড় অর্থাৎ ৬০০ থেকে ৭০০ টাকার ইলিশগুলির দাম ৮০০ থেকে ৯০০ টাকার আশপাশে পাওয়া যাচ্ছে। 

তবে ডিম ভরা বা আকারে বড় ইলিশ এখনও সেভাবে বাজারে ওঠেনি। কলকাতার বড় কিছু বাজার যেমন মানিকতলা বাজার, পাতিপুকুর ও লেক মার্কেটে পাওয়া যাচ্ছে। তবে এর দাম মধ্যবিত্তের ধরাছোঁয়াক বাইরে। এই মুহূর্তে ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু এই মাছগুলি এবারের নয়। কারণ এখনও বৃষ্টিই শুরু হয়নি। এগুলো হিমঘরে মজুত করা মাছ। 

বাঙালির ইলিশ আবেগ নতুন কিছু নয়। সকালে উঠে বাজারের থলি হাতে গিয়ে ইলিশ দর করার মধ্যে রয়েছে আলাদা সুখ। আর তাও যদি বড় ইলিশ হাতে ঝুলিয়ে আনা যায় তা হলে ষোলো কলা পূর্ণ। কিন্তু টাটকা ইলিশ থেকে এই মুহূর্তে বঞ্চিত বাঙালি। তাই আপাতত চাতক পাখির মতো বৃষ্টির জন্য হাঁ করে বসে  থাকা ছাড়া কোনও  উপায়।