অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন নানা ধরনের সমস্যায় কম বেশি পড়তে হয় সকলকেই। তার মধ্যে মর্নিং সিকনেস একটি। গর্ভাবস্থার শুরু থেকে ১২-১৪ সপ্তাহ পর্যন্ত একটা বমি বমি ভাব থাকে। একেই বলা হয় মর্নিং সিকনেস।  সকলেরই যে এটা হয়, তা নয়। তবে বেশিরভাগেরই এই সমস্যা দেখা যায়। এই সময়টা খুবই ক্লান্তি আসে শরীরে। কিছু খেতে ইচ্ছে করে না। সারাদিন যেন শুয়ে থাকতে ভাল লাগে। এই সময়ে মাঝে মাঝে প্যানিক অ্যাটাকেরও শিকার হয় কেউ কেউ। এই মর্নিং সিকনেসের শিকার হলে কীভাবে এই সমস্যা থেকে বেরানো সম্ভব হয়, রইল তার হদিশ।

আরও পড়ুন-৫ বছরের কম বয়সীদেরও বাধ্যতামূলক আধার কার্ড, কী কী লাগবে জেনে নিন...

মর্নিং সিকনেস দূর করার সহজ উপায়

সকালে ঘুম থেকে উঠে সবথেকে বেশি কষ্ট হয়। সেই তরল জাতীয় কিছু খেলে সমস্যা বাড়ে। কাজেই চা, জল ইত্যাদি না খেয়ে অল্প টোস্ট, বিস্কুট, মুড়ি এই ধরনের খাবার খান। 

রাতে ঘুমানোর সময় শুকনো কোনও খাবার খেতে পারেন।

বেশ ভাজা জাতীয় খাবার, টকজাতীয় খাবার এইসময় না খাওয়াই ভাল। এতে বমি হওয়ার সমস্যা আরও বেড়ে যায়।

কলা, অ্যাভোকাডো, চর্বিহীন মাংস খেলে সমস্যা কম হয়।

বমি যাদের বেশি হয় তারা একসঙ্গে বেশি খাবার খাবেন না। সারাদিন অল্প অল্প করে খাবার খান।

সারাদিনে পর্যাপ্ত পরিমাণে জল ও তরল খাবার খান।

আরও পড়ুন-চুলের স্টাইলেই বাজিমাত অফিস সাজ, রইল কিছু নজরকাড়া স্টাইল...

খাবার খেতে খেতে জল খাবেন না।

বদ্ধ ঘরে, ধোঁয়াতেও সমস্যা বাড়তে পারে। 

উগ্র গন্ধ এড়িয়ে চলুন।

 

 

খুব বমি পেলে আদা চা বা আদার কুচি মুখে রাখুন।

বমিভাব এড়াতে পাতিলেবুর পাতার গন্ধও শুকতেও পারেন।

বিশ্রাম নিন। তবে সবসময় শুয়ে বসে থাকবেন না। মাঝেমধ্যে ঘরের মধ্যেই হাটাচলা করুন।

যদিও এই সমস্যা ক্রমশ বাড়তে থাকে তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।