মারুতি সুজুকি অল্টো গত ১৫ বছর ধরে ভারতের সর্বাধিক বিক্রিত গাড়ি। অল্টো গাড়ি লঞ্চ হওয়ার পর থেকে কম পক্ষে ৩৮ লাখ ইউনিট গাড়ি বিক্রি করেছে মারুতি। নতুন এই 'গ্রীন' অল্টোর দাম শুরু হচ্ছে ৪.৩৩ লাখ টাকা থেকে। এই বছর ১লা এপ্রিল থেকে এমিশন বা নিঃসরণ  সংক্রান্ত নতুন  নিয়ম লাগু হচ্ছে এই দেশে তার আগেই নিয়মের সঙ্গে তাল রেখে মারুতি সুজুকি সিএনজি গাড়ি লঞ্চ করল  এই প্রথম বার। নির্মাতারা এও জানিয়েছে যে এরপর আরও নতুন 'গ্রীন কার' লঞ্চ করবে মারুতি সুজুকি।

উন্নত প্রযুক্তি সমৃদ্ধ পরিবেশবান্ধব গাড়ি নির্মাণ করাই এখন লক্ষ্য মারুতি সুজুকির। এই প্রচেষ্টার সূচনা হল অল্টো বিস ৬- সিএনজি -এর মাধ্যমে। অল্টো বিস ৬- সিএনজি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যাতে পারফরম্যান্স দুর্দান্ত হয় এবং এঞ্জিনের স্থায়িত্ব বেশি থাকে, সুখ স্বাচ্ছন্দ্য এবং মাইলেজ সব সঠিক মানের ও মাত্রার হয়।  এর সঙ্গে পরিবেশের কথা ভুলে গেলেও চলবে না, তাই মারুতি সুজুকি ইন্ডিয়া লিমিটেড, পরিবেশ রক্ষায় বদ্ধপরিকর একথাও এই সংস্থা জানিয়েছে।  

অল্টো গাড়ির এই নতুন সংস্করণে এঞ্জিন ছাড়া আর কিছুর বদল ঘটেনি। বিস ৬ কমপ্লায়েন্ট ৭৯৬ সিসি পেট্রল ইঞ্জিন যা থেকে  ৬, ০০০ আরপিএম এর সঙ্গে ৬৯ এন এম পিক টর্ক এ পাওয়া যাবে সর্বাধিক ৪৭ বিএইচপি এবং ৩৫০০ পেট্রোল মোডের আরপিএম। মারুতি সুজুকি মারফৎ জানা গেছে নতুন অল্টো বিএস ৬ এস-সিএনজি প্রদান করে ৩১.৫৯ কিমি/কেজি ফুয়েল এফিসিয়েন্সি। নতুন এস-সিএনজি মডেলে শুধুমাত্র পরস্পরের ওপর নির্ভরশীল ইসিইউ (ইলেক্ট্রনিক কন্ট্রোল ইউনিটস) এবং ইন্টেলিজেন্ট ইঞ্জেকশন থাকছে তা নয় , এর সঙ্গে থাকবে উন্নত মানের ড্রাইভাবিলিটি, অর্থাৎ এমনভাবে এই গাড়ি তৈরি হয়েছে যাতে এখানকার যে কোনও অঞ্চলেই এই গাড়ি চালাতে কোনও অসুবিধে না হয়,  পারফরম্যান্স ভালো হয়। সুরক্ষা নিশ্চিত থাকে।

বিস ৬ মডেল লঞ্চ হওয়ার পর থেকে ১ লাখ ইউনিট বিস-৬ অল্টো বিক্রি করেছে মারুতু সুজুকি গত বছরে। প্রথম যে  বিএস-৬ গাড়ি বের করেছিল মারুতি সুজুকি তার নতুন উন্নতমানের আর একটি ধরণ (অল্টো ভিএক্স আই) লঞ্চ করা হয়েছিল ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে।

  
মারুতি সুজুকি অল্টো বি এস ৬ সিএনজি গাড়ির দাম-

এলএক্স আই - ৩.৩৩ লাখ
এলেক্স আই (ও)- ৪.৩৬ লাখ