দরজায় কড়া নাড়ছে পুজো। পুজো ঘিরে তৈরি হয় অনেক রকমের প্ল্যানিং। পুজোর নতুন জামা থেকে শুরু করে পুজোর খাওয়া-দাওয়া সব কিছুই থাকে লিস্টে। পুজোর সাজের সঙ্গে চাই মানানসই ব্যাগও। এরপর ব্যাগে থাকা চাই কিছু গুরুত্বপূর্ণ জিনিস যা পুজোর ভিড়ে আপনার ব্যাগে থাকলে আপনি অপ্রস্তুতে পড়বেন না। তাই ব্যাগে অন্যান্য অপ্রযোজনীয় জিনিসের ভিড় না বাড়িয়ে, রাখুন সেই সমস্ত জিনিস যার দরকার পড়বেই আপনার। একনজরে দেখে নিন সেই লিস্ট।

নিত্য প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র- প্যান্ডেল হপিং-এ বেরোলে অবশ্যই সঙ্গে রাখুন আপনার নিত্য প্রয়োজনীয়ওষুধপত্র। খুব কমন কিছু ওষুধ ওবং তাঁর সঙ্গে রাখুন আপনি যদি রেগুলার বিশেষে কোনও ওষুধ নেন, সেগুলি। এছাড়া সঙ্গে রাখুন ব্যান্ড-এড। যাতে হঠাৎ করে রাস্তায় কোনও অসুবিধার সম্মুখীন না হন। সঙ্গে রাখুন হ্যান্ড স্যানিটাইজার।  

লিপ বাম- এটি থাকলে ঠোঁটের আর্দ্রতা নিয়ে আর ভাবতেই হবে না আপনাকে। যে কোনও জায়গাতে থাকলে আপনি সহজেই লাগিয়ে নিতে পারবেন। এছাড়া বাজারে এখন হালকা রঙ হবে এরকম লিপ বামও পাওয়া যায়। ঠোঁটে লিপ বাম লাগিয়ে নিয়ে হালকা মেক-আপ করে দিনের বেলার সাজটা সেরে নিতে পারেন। 

আরও পড়ুন- পুজো নিয়ে বাঙালীর সেরা ৮ ঝগড়া, যা স্বামী-স্ত্রীর করা চাই

কাজল- ব্যাগে রাখুন কাজলও। সারাদিন বাইরে থাকলে সেক্ষেত্রে আপনি চটজলদি কোনও শপিং মল বা কোথাও ঢুকে হালকা কাজলের টাচ আপ দিয়ে নিতে পারেন। অল্প কাজলের টাচ আপেই বাজিমাত করে ফেলতে পারবেন আপনি। 

কমপ্যাক্ট- বাইরে বেরোলে মুখ তেলতেলে হবে সেটাই স্বাভাবিক। কমপ্যাক্ট নিয়ে হালকা টাচ আপ করে নিতে পারেন। তাই ব্যাগে রাখুন কমপ্যাক্ট। সেলফি তুলতেও দ্বিধা বোধ করবেন না তখন। 

পারফিউম- এই জিনিসটা অতি অবশ্যই দরকার। রাস্তায় ঘাটে ঘামের দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য পারফিউম অতি অবশ্যই দরকার। নিমেষেই তরতাজা হয়ে উঠবেন আপনি। 

ওয়েট ওয়াইপস- অত্যন্ত প্রয়োজনীয় কাজের জিনিস এটি। রাস্তায় ঘাটে গরমে চটজলদি ফ্রেশ করে তুলতে নিজেকে, ওয়েট ওয়াইপস খুব কাজে আসে। 

সেফটিপিন- হঠাৎ করে রাস্তায় ঘাটে কোনও অসুবিধাতে পড়লে, যেমন কিছু ছিড়ে গেলে সেফটিপিন কাজে আসবে। 

জলের বোতল ও ছাতা- রাস্তায় বেরিয়ে যেখান-সেখানের জল খাওয়ার থেকে ভালো বোতল সঙ্গে রাখা। শেষ হয়ে গেলে ভালো কোম্পানির জল কিনে খান। মনে রাখবেন জল থেকে কিন্তু অনেক ধরণের রোগ হয়ে পারে। এছাড়া সঙ্গে রাখুন ছাতা, দিনের বেলায় রোদের থেকে বাঁচতে। অথবা হঠাৎ করে বৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা পেতে।