দেশের পরিবেশ দূষণের জন্য় প্লাস্টিকের একটি বড় ভূমিকা রয়েছে। সারা ভারতে, ২ অক্টোবর থেকে মূলত ছয় ধরনের প্লাস্টিকজাত দ্রব্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে । মূলত প্লাস্টিকমুক্ত ভারত, করার লক্ষ্যেই এই বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। কিন্তু এতদিনে যে পরিমান প্লাস্টিক-বর্জ্য জমে গেছে, তার থেকেও মুক্তি পাওয়া ও বিপুল পরিমানে শক্তি উৎপাদনের পথ দেখাল ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন। 

আরও পড়ুন, দামের ঝাঁঝে রান্নাঘরে আকাল পেঁয়াজের, বাড়ির চাষে হবে সমস্যার সমাধান

পরিসংখ্যান থেকে জানা যাচ্ছে, ভারতে প্রতি বছর প্রায় ১ কোটি ৪০ লক্ষ টন প্লাস্টিকের বর্জ্য তৈরি হয়। এদিকে বিশাল পরিমান প্লাস্টিক, মাটির সঙ্গে মেশেও না। তাই এই বিপুল পরিমান  প্লাস্টিক-বজ্য়কে কীভাবে পুনব্য়বহার করা যায় তা নিয়ে দেশের মধ্য়ে রীতিমত গবেষণা চলছে। আর এর মধ্য়ে আশার আলো দেখালো, ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন।

আরও পড়ুন, পাহাড়ে অফবিট রুটের খোঁজ, শীতের মরশুমে ঘুরে দেখুন সিলারি গাঁও

 সম্প্রতি সেই গবেষণায় প্রাথমিক ভাবে সাফল্য মিলেছে। ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন, এই সাফল্যের হাত ধরে প্লাস্টিকের বর্জ্য থেকে ব্যবহারযোগ্য তেল উৎপাদনের লক্ষ্যে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল। সংস্থার সূত্রে খবর, কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে যৌথ উদ্য়োগে ২০২২ সালের মধ্যেই প্লাস্টিকের বর্জ্য থেকে ব্যবহারযোগ্য তেল উৎপাদনের কাজ শুরু করা যাবে।

আরও পড়ুন, মাইগ্রেনের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ভরসা রাখুন আড়াই প্যাচের জিলিপিতে

জানা গিয়েছে, চীনে এবং জাপানে ইতিমধ্য়েই প্লাস্টিকের বর্জ্য থেকে ব্যবহারযোগ্য তেল উৎপাদনে সফল হয়েছে। পরিসংখ্যান বলছে, এই দুই দেশ ১০০ টন প্লাস্টিক প্রতি ৬০ থেকে ৬২ টন তেল উৎপাদন করা সম্ভব হয়েছে।