বাঙালির ভাত ছাড়া চলে না। কিন্তু ভাত রান্না করেই অনেকেই ভাতের মাড় পেলে দেন। কিন্তু জানেন কি ভাতের মতোই বেশ কিছু উপকারিতা আছে ভাতের মাড়ের। তাই ভাত রান্না করে তা ফেলে দেবেন না। বরং তা রেখে দিন। তার আগে জেনে নিন, ভাতের মাড় থেকে কী কী উপকার পাবেন- 

১) ভাতের মাড় ত্বকের পক্ষে খুবই ভাল। বিশেষ করে ট্যান পড়া ত্বকে ভাতের মাড় লাগালে উপকার পাবেন। ভাতের মাড় প্রথমে ঠান্ডা করে নিন। এবার ট্যান পড়া ত্বকে মাড় ভাল করে লাগিয়ে নিন। এতে ত্বকে জেল্লাও আসবে। সঙ্গে ট্যানমুক্ত হবে ত্বক। 

আরও পড়ুনঃ এই খাবারগুলি কি ফ্রিজে রাখেন! বড় বিপদ ডেকে আনছেন

২) একই পদ্ধতিতে ত্বকে ভাতের মাড় লাগালে ত্বক থেকে বয়সের ছাপ দূরে রাখা যায় সহজেই। পিগমেন্টেশনও দূরে করতে পারে। 

৩) ভাতের মাড় চুলে কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে। প্রথমে ভাতের মাড় ভাল করে জলে মিশিয়ে কিছুটা পাতলা করে নিন। এবার শ্যাম্পু করার পরে সেই মাড় গোলা জল দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। চুলের ডগা ফেটে গেলে সেই সমস্যা সহজেই দূর হতে পারে। চুলের গোড়া মজবুত রাখতেও এর জুড়ি মেলা ভার। 

৪) ত্বকে যাঁদের প্রায় জ্বালা, চুলকানি, লালচে ভাব হয়, তাঁদের পক্ষে ভাতের মাড় খুবই উপকারী। ভাতের মাড় জলে মেশান। সেই জল দিয়ে স্নান করুন। উপকার পাবেন সহজেই। 

৫) ব্রণর সমস্যা হলেও ভাতের মাড়ের জুড়ি মেলা ভার। ঠান্ডা ভাতের মাড় তুলোয় নিয়ে ব্রণর উপরে লাগান। এতে সহজেই উপকার পাবেন।