আজ কোজাগরী লক্ষ্মী পুজো। তবে দুর্গাপুজোর লম্বা খরচের পর খুব দ্রুতই সব বাঙালির ঘরে লক্ষ্মী পুজো আসে। ধন রাশির দেবী মা লক্ষ্মীকে সবাই শ্রদ্ধার সঙ্গে নিজের ঘরে পুজো দেন। যাই হোক কমবেশি সবাই মন মত লক্ষ্মী প্রতিমা কেনার জন্য পুরো বাজার অনেক ঘোরাঘুরি করেন। তবে এবার বাজারে, আগের বারের থেকেও এবার প্রতিমার দামটা অনেক বেশি। তাই ভোর রাতেও বড় আকারের লক্ষ্মী ঠাকুর অল্প দামে কেনার জন্য অনেকেই অপেক্ষায় ছিলেন।

আরও পড়ুন, বাজার দর আগুন, লক্ষ্মী পুজোর আয়োজনে মাথায় হাত মধ্যবিত্তের

 গতবছর ১০০ টাকায় যে প্রতিমা মানুষ কিনেছেন, এবছর সেই প্রতিমারই দাম বেড়ে গিয়ে প্রায় ১৬০। খুব ছোট শুধুমাত্র রঙ করা মাটির প্রতিমা হলেও তার দাম ১০০ টাকা ছুঁই ছুঁই । আর প্রতিমার আকার একটু বড় হলে তো কথাই নেই। তখন দামটা আরও বেড়ে গিয়ে প্রায় ৩০০ টাকার কাছাকাছি। তবে রঙ করা মাটির প্রতিমার উপর যদি   শাড়ি, গয়না আর মুকুট পরানো থাকে তাহলে প্রতিমার দাম ৫০০ টাকা ছাড়িয়ে যাবে। এদিকে অনেক বাঙালিই আছেন,যাদের ডাকের সাজের প্রতিমা খুব প্রিয়। সেই ক্ষেত্রে  ডাকের সাজের প্রতিমার দাম শুরু ৮০০ টাকা থেকে এবং বারোয়ারি পুজোর প্রতিমার দাম প্রায় ১,৫০০ টাকার আশেপাশে।   

আরও পড়ুন, এই নিয়মে লক্ষ্মীপুজো করলে দেবীর কৃপাদৃষ্টি সর্বদা বজায় থাকবে আপনার সংসারে
 
এবছর শনিবার মাঝরাত অর্থাৎ রাত ১২টা থেকে পূর্ণিমা লেগেছে, থাকবে রবিবার রাত ১টা পর্যন্ত। মাঝখানে সময় বেশ অনেকটাই। তাই ইতিমধ্যেই বাঙালির ঘরে লক্ষ্মী পুজো শুরু হয়ে গেছে। কেউবা খড়ি মাটি দিয়ে আলপনা দিতে ব্যস্ত, কেউবা অঞ্জলি দিতে। আর সারাবছরের মধ্যে বোধয় আজকের দিনটায় মা লক্ষ্মীর কল্যানে, কলকাতার কচিকাচারা  ধান গাছ নিজের চোখে দেখতে পায়।