কানে ময়লা জমার বিষয়টি খুবই স্বাভাবিক। অনেকেই কানের ময়লা পরিষ্কার জন্য কটন বাড ব্যবহার করে থাকেন।  কারণ সাধারণভাবে মনে হতে পারে ইয়ারবাডের সাহায্যে খুব সহজেই কানের ময়লা পরিষ্কার করে দেওয়া সম্ভব। কিন্তু জানেন কি, ইয়ার বাড দিয়ে কান পরিষ্কার করা মোটেও কাজের কথা নয়। এমনকী বিশেষজ্ঞরাও এই বিষয়টি বারবার বলে থাকেন যে, কান চুলকালে সাধারণত, কান কটন বাড দিয়ে পরিষ্কার করার যে প্রবণতা রয়েছে তা একেবারেই ভাল অভ্যায় নয়। 

কটন বাড ব্যবহারের প্রসঙ্গে বিশেষজ্ঞদের দাবি, কানের ময়লা বের করার জন্য কটন বাড একেবারেই ব্যবহার করা উচিত নয়। তাঁরা বলেন, এতে কানের ময়লা কিছুটা পরিমাণে বের করা হলেও কিছু ময়লা কানের ভেতরে ঢুকে যায়, যার ফলে আপাতভাবে কান পরিষ্কার হয়েছে বলে মনে হলেও আদতে হয় ঠিক তার উল্টো। এর ফলে আপনার অজান্তেই হয়ে যেতে পারে মারাত্মক ক্ষতি। 

সাধারণত কানে ময়লা জমলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত বলে জানান বিশেষজ্ঞেরা। কারণ অনেকেই অসাবধানভাবে কান চুলকোলে তাতে কানের ভেতরে আঘাত লাগার সম্ভাবনা বেশি থাকে। আর যাদের কানে আগে থেকে ফাংগাল ইনফেকশনের সমস্যা আছে তাঁদের তো এই বিষয়ে আরও বিশেষভাবে যত্ন নেওয়া উচিত। তবে সাধারণভাবে কানে ময়লা জমলে কানের মধ্যে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল দিলে ময়লা নরম হয়ে নিজে থেকেই বেরিয়ে আসবে। আর তা না করে কেউ যদি জোর করে কোনও উপায় অবলম্বন করে কানের ময়লা বের করতে চান তাতে ক্ষতি কিন্তু আপনারই। এর ফলে কানে সৃষ্টি হতে পারে কোনও ক্ষত, যা থেকে পরবর্তীকালে ইনফেকশন-এর সমস্যা দেখা দিতে পারে।