Asianet News Bangla

কেন পালিত হয় নারী সমানাধিকার দিবস, জেনে নিন বিশেষ এই দিনের অজানা ইতিহাস

  • সারা বিশ্বে পালিত হচ্ছে মহিলাদের সমতা দিবস
  • জীবনে একসঙ্গে বহু ভূমিকা পালন করেন মহিলারা
  • ১৯২০ সালের ঠিক এই দিনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হয়েছিল এর যাত্রা
  • শুরু হয়েছিল সমান অধিকারের পক্ষে দৃঢ়ভাবে সমর্থন 
Women Equality Day 2020 know about the unknown history of this day BDD
Author
Kolkata, First Published Aug 26, 2020, 4:36 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

২৬ অগাষ্ট বুধবার সারা বিশ্বে পালিত হচ্ছে মহিলাদের সমতা দিবস । ১৯২০ সালের ঠিক এই দিনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের ১৯ তম সংশোধনী গৃহীত হয়। এই দিনটি পুরুষদের সমান অধিকার হিসাবে মহিলাদের আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেই সময় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বহু মহিলা সংগঠন মহিলা সমতা দিবস পালন করেন তার পর থেকেই। এর পাশাপাশি,কর্মসংস্থান এবং শিক্ষার ক্ষেত্রে নারীদের জন্য সমান অধিকারের পক্ষে দৃঢ়ভাবে সমর্থন করা শুরু হয়।

মহিলারা সমস্ত মানব প্রজাতির অক্ষ। তিনি কেবল সন্তানের জন্মই দেন না, লালন ও সংস্কারও করেন। মহিলারা তাদের জীবনে একসঙ্গে বহু ভূমিকা পালন করেন। কখনও মা, কখনও স্ত্রী, বোন, শিক্ষকা, বন্ধু প্রতিটি ক্ষেত্রে তাঁরা তাঁদের দায়িত্ব সমান ভাবে পালন করেন। মায়েরা বাড়তি বাচ্চাদের জীবনের মূল্য শেখায় - যেমন প্রতিকূল পরিস্থিতিতে, কীভাবে ব্যর্থতার বিরুদ্ধে লড়াই করতে হয় এবং কোন দিকে সাফল্যের দিকে পদক্ষেপ নিতে হয়। একটি শিশুর জীবনে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ও গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষক হলেন একজন মা।

 আন্তর্জাতিক গবেষণায় দেখা যায় যে, যখন কোনও সমাজের অর্থনীতি ও রাজনৈতিক সংগঠন পরিবর্তিত হয়, মহিলারা পরিবারকে সাহায্য করার উদ্যোগ নেয়, তখন তারা নতুন বাস্তবতা এবং চ্যালেঞ্জগুলির সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার ক্ষমতা রাখে।

নারী সমানাধিকার দিবসের ইতিহাস-

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গৃহযুদ্ধের আগে, মহিলাদের ভোটাধিকার আন্দোলন শুরু হয়েছিল। ১৮৩০-এর সময়ে আমেরিকার বেশিরভাগ রাজ্যে কেবল ধনী শ্বেতাঙ্গ পুরুষদেরই ভোটার অধিকার ছিল। এই সময়ে, বহু নাগরিক অধিকার আন্দোলন যেমন দাসত্ব,  নৈতিক আন্দোলন ইত্যাদি সারা দেশে খুব দ্রুত ঘটেছিল। মহিলারাও এই আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন।

১৮৪৮ সালে একদল আন্দলোনকারী নিউইয়র্কের সেনেকা ফলসে জড়ো হয়েছিল। এই গোষ্ঠীটি মহিলাদের সমস্যা এবং মহিলাদের অধিকার সম্পর্কে আলোচনা করছিল। এই দলের মহিলাদের মধ্যে কিছু পুরুষও অন্তর্ভুক্ত ছিল। তাঁরা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে, আমেরিকান মহিলারাও তাঁদের নিজস্ব রাজনৈতিক পরিচয়ের প্রাপ্য। কয়েক বছর পরে এই আন্দোলনটি খুব দ্রুত হয়ে ওঠে। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দাসত্ববিরোধী আন্দোলনের কারণে, মহিলা অধিকার আন্দোলন এই আন্দোলনের গতি উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়তে থাকে। পরবর্তী সময়ে ১৮৯০ এর দশকে, ন্যাশনাল আমেরিকান ওমেন স্যাফারেজ অ্যাসোসিয়েশন শুরু হয় এবং এর নেতৃত্বে ছিলেন এলিজাবেথ ক্যাডি স্ট্যানটন। দশকের শেষের আগে, আইডাহো এবং ইউটা মহিলাদের ভোট দেওয়ার অধিকার দিয়েছিল। সেই থেকেই সূচণা নারী সমানাধিকার দিবস-এর। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios