দিন কয়েক আগে কমল হাসান জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসে-কেই প্রথম হিন্দু সন্ত্রাসবাদী বলেছিলেন। আর তারপর থেকে 'হিন্দু সন্ত্রাস' প্রসঙ্গে বিতর্ক চলছেই। রোজই কোনও না কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এই বিষয়ে মত প্রকাশ করছেন। শুক্রবার এই বিতর্কে যোগ দিলেন রাহুল গান্ধীও।

কংগ্রেস সভাপতি শুক্রবার এক টুইট পোস্টে লেখেন, অবশেষে তিনি বুঝতে পেরেছেন, বিজেপি এবং আরএসএস 'গড-কে' (ঈশ্বরের) প্রেমী নয়। তারা 'গড-সে' (নাথুরাম গডসে ) প্রেমী।

কমল হাসান গান্ধীর মূর্তির তলায় দাঁড়িয়ে বলেছিলেন স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী ছিলেন নাথুরাম গডসে, যিনি একজন হিন্দু ছিলেন। আর তারপর থেকে এই বিতর্কের গঙ্গা দিয়ে অনেক জয় বয়ে গিয়েছে। বৃহস্পতিবার মালেগাঁও বিস্ফোরণের অভিযুক্ত তথা ভোপাল লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর নাথুরাম গডসেকে দেশভক্ত বলে শংসা দেন। জানান তিনি চিরকালই দেশভক্ত ছিলেন, আগামী দিনে থাকবেন।

শুক্রবারই যার কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মোদী বলেছেন, মহাত্মা গান্ধীকে অপমান করেছেন প্রজ্ঞা। তাই তাঁকে ক্ষমা করবেন না।

তবে কমল হাসানও ওই মন্তব্যের জন্য তৈরি হওয়া উগ্র প্রতিক্রিয়া হাত থেকে রেহাই পাননি। তাঁকে ছটি চুড়ে মারা হয়েচে। তাঁর মিছিলে ডিম ছোড়া হয়েছে। এমনকী নির্বাচন কমিশনও তাঁর প্রচারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।