Asianet News BanglaAsianet News Bangla

বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কের 'মাশুল', আদিবাসী মহিলাকে 'পিটিয়ে মারল' গ্রামবাসীরাই

  • বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কের 'মাশুল'
  • আদিবাসী মহিলাকে পিটিয়ে 'খুন'
  • গুরুতর আহত তাঁর প্রেমিকও
  • মধ্যযুগীয় বর্বরতা পশ্চিম মেদিনীপুরে
     
A tribal woman beaten to death for extra marital affairs in West Midnapore
Author
Kolkata, First Published Mar 6, 2020, 7:44 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। আদিবাসী এক মহিলাকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে মারল গ্রামেরই কয়েকজন যুবক! হামলায় গুরুতর জখম মৃতার প্রেমিকও। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘুচিশোল গ্রামে। অভিযুক্তরা পলাতক।

আরও পড়ুন: রাজ চক্রবর্তীর নামে 'প্রতারণা', গৃহবধূর কাছ থেকে টাকা চম্পট যুবকের

মৃতার নাম মালতি মুর্ম। ঘুচিশোল গ্রামেই থাকতেন বছর আটচল্লিশের ওই গৃহবধূ। পাশের গ্রামের বাসিন্দা সনাতন হাঁসদা নামে এক যুবকের সঙ্গে বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্ক ছিল মালতি-র। তাঁদের সম্পর্কের কথা গ্রামের সকলেই জানতেন।  জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে খোলা মাঠে তাঁদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেন গ্রামের কয়েকজন যুবক। ব্যস আর যায় কোথায়! অভিযোগ, মালতি ও তাঁর প্রেমিককে রীতিমতো লাঠি দিয়ে মারতে মারতে গ্রামে নিয়ে আসা হয়। গ্রামে আনার পরেও চলে মারধর। এরপর অভিযুক্তরা যে যার বাড়িতে চলে যায়। গভীর রাতে মারা যান মালতী, গুরুতর আহত সনাতনকে উদ্ধার করে ভর্তি করা হয় শালবনী হাসপাতালে।  

আরও পড়ুন: গরমকালে রক্তের সঙ্কট কমবে এবার, ১৮ হাজার বোতল রক্ত সংগ্রহের লক্ষ্য়ে অভিযান স্বাস্থ্য় দফতরের

খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে ঘুচিশোল গ্রামে গিয়ে মালতী মুর্ম দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।  অভিযুক্তরা সকলেই পলাতক। তদন্তে নেমেছে পুলিশ। কিন্তু গ্রামে যখন মালতী ও সনাতনকে মারধর করা হচ্ছিল, তখন কেন রুখে দাঁড়ালেন না?সেই সুযোগটুকুও পাননি বলে দাবি করেছেন গ্রামবাসীরা।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios