এবার তৃণমূলের সঙ্গে সিএএ নিয়ে ভুল বোঝানোর দায় শহুরে নকশালদের ওপর চাপালেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। বিজেপি নেতার দাবি, সিএএ কাউকে তাড়ানোর আইন নয়, হিন্দু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার আইন। 

সোমবার মেদিনীপুর শহরে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের স্বপক্ষে বাড়ি বাড়ি প্রচার করলেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। প্রতিটি বাড়িতে গিয়ে মানুষকে বোঝান বিজেপির এই নেতা। সায়ন্তন দাবি করেন, এই আইন কারও বিপক্ষে নয়, কাউকে না তাড়িয়ে শুধু হিন্দু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দিতেই এই আইন। বিরোধীদের এ নিয়ে ভুল বোঝাচ্ছেন।

সোমবার মেদিনীপুর শহরের কুড়ি নম্বর ওয়ার্ডের নজরগঞ্জ এলাকায় বাড়ি বাড়ি প্রচার করেছেন সায়ন্তন বসু। দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে মানুষের অভাব অভিযোগ জানার চেষ্টা করেন। সেইসঙ্গে নাগরিকত্ব সংশোধন আইন কী এবং কাদের জন্য তা বোঝান। এদিন মানুষের কাছে কাউকে তাড়িয়ে দেওয়ার বিষয়ে চড়া সুর মোটেও উত্থাপন করেননি সায়ন্তন বসু। সুর নরম করে শুধু জানান,এই আইন কাউকে তাড়াতে তৈরি হয়নি। শুধুমাত্র হিন্দু বাংলাদেশি শরণার্থী উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্ব দিতে, বৈধতা দিতেই এই উদ্যোগ।

এই বলেই অবশ্য থেমে থাকেননি সায়ন্তন বসু। তিনি বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের বিষয়ে মানুষকে ভুল বোঝানো হচ্ছে। তৃণমূল, কিছু আরবান নকশাল, বেশকিছু সংবাদমাধ্যমে পরিকল্পিতভাবে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। আমরা মানুষকে প্রকৃত সত্য বোঝানোর জন্য বাড়িতে বাড়িতে যাচ্ছি। বেশিরভাগ মানুষই আমাদের সঙ্গে সহমত প্রকাশ করেছেন।