শাহজাহান আলি, মেদিনীপুর: নেপথ্যে কি করোনার আতঙ্ক? বাড়ির শৌচাগারে গা-এ আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করলেন এক বৃদ্ধা। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে মেদিনীপুর শহরে।

আরও পড়ুন: মাদক খাইয়ে ট্যাঙ্কার লুঠ, শালবনির জঙ্গল থেকে উদ্ধার চালক আর খালাসি

জানা গিয়েছে, মৃতার নাম বিজলিরানি দে। বাড়ি, মেদিনীপুর শহরের নেপালি পাড়া এলাকায়। এক সপ্তাহ আগে পড়ে দিয়ে কাঁধে চোট পেয়েছিলেন বিজলিরানী। বাড়িতেই চিকিৎসা চলছিল তাঁর। ছেলের অর্ণব কুমার দে জানিয়েছেন, সোমবার সকালেও সবকিছু স্বাভাবিকই ছিল। মা-কে খাবার খাইয়ে যাথরীতি কাজে বেরিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। পরে ফোনে জানতে পারেন, বাড়ির শৌচাগারে ওই বৃদ্ধার অগ্নিদগ্ধ দেহ পাওয়া গিয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় কোতুয়ালি থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন: পুজোর আগে দুঃসংবাদ, কাজ হারাতে পারেন স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার এটিএম কর্মচারীরা

কীভাবে এমন ঘটনা ঘটল? প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, শৌচাগারে দিয়ে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যাই করেছেন বিজলিরানী। কিন্তু কেন? স্থানীয় সূত্রে খবর, দিন কয়েক আগে পরিবারের একজনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। ফলে এক বাড়িতে পরিবারের বাকী সদস্যদের আলাদা থাকতে হচ্ছিল। কিছু একঘরে হয়ে গিয়েছিলেন ওই বৃদ্ধা। সেকারণেই কি গ্রাস করেছিল অবসাদ? তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারী।