গত কয়েক মাস ধরে খড়গপুর আইআইটি ক্য়াম্পাস থেকে পথ কুকুরদের ধরে পাচার করা হচ্ছিল। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ,আইআইটি কর্তৃপক্ষই লোপাট করছে এই কুকুরদের। কুকুর উধাও রহস্যের জট খুলতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় খড়গপুর টাউন থানায় আইআইটি কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করল স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকেও টুইট করেছেন তারা।

কী গল্প কলকাতাকে শোনাল রোবট কন্যা সোফিয়া, দেখুন সেরা ১২ ছবি

খড়গপুর আইআইটি ক্যাম্পাসের মধ্যে রয়েছে হিজলি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা রুমা রায়ের অভিযোগ," গত মঙ্গলবার আমার বাড়ির সামনে থেকে প্রায় দশটি পথ কুকুর তুলে নিয়ে যায় আইআইটির কর্মীরা। এদের ছোটবেলা থেকে খাবার দিয়ে বড় করেছি। আইআইটি কর্তৃপক্ষ তুলে নিয়ে যাচ্ছে জানতে পেরে সিকিউরিটি কন্ট্রোল রুমে গিয়েছিলাম। কুকুরগুলো ছেড়ে দেওয়া তো দূর ,সেখানে আমার সঙ্গে খারাপ আচরণ করা হয়েছে। "

এবার কিডনিতেও ছড়াল সংক্রমণ, পোলবায় জখম ঋষভের অবস্থার আরও অবনতি

আইআইটি ক্যাম্পাসে থাকা বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, আইআইটি ক্যাম্পাস চত্বর থেকে পথকুকুর সরাতে রাতদিনে অভিযান চালাচ্ছে দায়িত্বে থাকা কর্মীরা। কুকুরগুলিকে ধরে চার চাকার গাড়িতে তুলে চালান করে দেওয়া হচ্ছে বাইরে। বিষয়টি নিয়ে খোঁজখবর নেওয়া শুরু করে দিয়েছে বেশকিছু কুকুরপ্রেমী স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। 

এমনই এক স্বেচ্ছাসেবী বরুণ পাল বলেন," কুকুরগুলিকে খাবারের লোভ দেখিয়ে ডেকে বিপজ্জনকভাবে ইনজেকশন দেওয়া হচ্ছে। তারপর তাদের হাতে মুখে দড়ি দিয়ে বেঁধে পাচার করা হচ্ছে। অনেক ছানাকে ছেড়ে মাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। না খেতে পেয়ে ঘুরছে কুকুরছানাগুলি । আইআইটি কর্তৃপক্ষের কাছে এমন অমানবিক কাজ আশা করা যায় না। আমরা আইআইটি কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।"

তাপস সহ তিন মৃত্যুর জন্য দায়ী কেন্দ্র, বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার সময় সংস্থার পক্ষ থেকে আইআইটি কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে খড়্গপুর টাউন থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এই ঘটনায় কোনো প্রতিক্রিয়া দেয়নি খড়গপুর আইআইটি কর্তৃপক্ষ।