শাজাহান আলি, পশ্চিম মেদিনীপুর-পুলিশের নজরদারি এড়িয়ে জেল থেকে চম্পট দুই আসামী। পলাতক বিচারাধীন দুই বন্দির খোঁজে হুলস্থূল কাণ্ড পশ্চিম মেদিনীপুরে। মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে আসামী পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পুলিশ মহলে। পলাতকদের খোঁজে মেদিনীপুর শহর জুড়ে চিরুণী তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন-শিলিগুড়িতে পাশাপাশি ফিরহাদ-অশোক, 'ডাল মে কুছ কালা হ্যায়', কটাক্ষ দিলীপের

জানাগেছে, অক্টোবরের ২৫ তারিখ দমদম জেল থেকে মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে আনা হয়েছিল বিচারাধীন দুই বন্দি মিঠুন দাস ও মনোজ বিশ্বাসকে। দুই আসামীর বাড়ি কলকাতার উল্টোডাঙা ও বাসন্তী কলোনীতে। দমদম জেলে গন্ডগোল পাকানোর জেরে তাদের মেদিনীপুরে স্থানান্তরের নির্দেশ দিয়ে বারাকপুর আদালত। সোমবার পুলিশের কড়া পাহারার নজর এড়িয়ে দেওয়াল টপকে চম্পট দেয় দুই আসামী। এদিন সন্ধ্যার সময় কয়েদিদের গুণতির সময় ওই দুই জনের খোঁজ মেলেনি।

আরও পড়ুন-শিলিগুড়িতে পাশাপাশি ফিরহাদ-অশোক, 'ডাল মে কুছ কালা হ্যায়', কটাক্ষ দিলীপের

বিষয়টি জানার পরই মেদিনীপুর কোতোয়ালি থানায় খবর দেয় জেল কর্তৃপক্ষ। পলাতক বন্দিদের খোঁজে যৌথ অভিযান শুরু করেছে কোতোয়ালি থানা ও জেলা পুলিশ। গোটা মেদিনীপুর শহর জুড়ে চিরুনি তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। কীভাবে তারা জেল থেকে পালাল। তা নিয়ে ধন্দে পুলিশ কর্তারা।