পাকিস্তানের শেখুপুরার ভায়াবহ  দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন কমপক্ষে ১৯ জন শিখ তীর্থযাত্রী। এই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে আরও আট জন। একটি বাসে  করে শিখ তীর্থযাত্রীরা ফিরছিলেন। একটি ট্রেন লাইনের লেভেল ক্রসিং পার হওয়ার সময়ই এই দুর্ঘটনা ঘটনা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন তীব্রগতিতে করাচি থেকে  আসা লাহোরগামী শাহ হুসেন এক্সপ্রেস ধাক্কা মারে বাসটিকে। পুলিশ জানিয়েছে দুর্ঘটনার সময় বাসে ২৭ জন যাত্রী ছিল। 


পুলিশ সূত্রের খবর শিখ তীর্থ যাত্রীরা পঞ্জাব প্রদেশের নানকানা সাহেব থেকে ফিরছিলেন। সেই সময়ই তাঁরা দুর্ঘটনার মধ্যে পড়েন। লেভেল ক্রসিংটি প্রহরী বিহীন ছিল। কোনও রেলও ছিল না। তাই  বিনা বাধায় বাসটি লেভেল ক্রসিং-এর ওপর উঠে গিয়েছিল। সেই সময়ই তীব্র গতিতে আসা এক্সপ্রেস ট্রেনের ধাক্কা মারে তীর্থযাত্রী বোঝাই বাসে। আহতদের হাসপাতালে পাঠান হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে দুর্ঘটনায় মৃতদের দেহগুলি। 

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এই দুর্ঘটনায় মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। আহতদের দ্রুত চিকিৎসারও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।