প্রতিবেশী পাকিস্তানে ক্রমেই বাড়ছে যৌন অপরাধের সংখ্যা। বাড়ছে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ডিভোর্সের ঘটনা। দেশে যৌন নির্যাতনের ঘটনা বাড়ার জন্য এবার ভারতের দিকেই আঙ্গুল তাক করলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পাকিস্তানে সামাজিক অবক্ষয়ের জন্য বলিউডকে নিশানা করলেন তিনি। 

চলতি সপ্তাহে পাকিস্তানের ডিজিটাল মিডিয়ার গণ্যমান্য লোকেদের সঙ্গে এক আলোচনাসভায় যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান। সেখানেই  দেশে সেক্স ক্রাইম বাড়ার জন্য ভারতের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন ইমরান। বলিউডের সিনেমাকে এজন্য একহাত নেন তিনি। ইমরান খানের কথায়, 'পাকিস্তানে যৌন অপরাধ বৃদ্ধির জন্য ভারতই দায়ী।'

আরও পড়ুন: ঘটনার দিন মহিলা ছিলেন নাকি তার স্ত্রী, দিল্লির আদালত বেকসুর খালাস দিল অভিযুক্তকে

অভিযোগের সুরে ইমরান বলেন, 'বলিউডের কারণেই সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তানে যৌন অপরাধের সংখ্যা বেড়েছে।'  তবে কেবল বলিউড নয়, এবিষেয় হলিউডকেও দায়ী করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। ইমরানের ভাবখানা ছিল এমন, যেন বলিউডের হিন্দি ছবি না দেখলে যৌন অপরাধ বিষয়ে জানতই না পাকিস্তান। দেশে হত না বিবাহ-বিচ্ছেদ।

আরও পড়ুন: প্রতারণায় অভিযুক্ত আফ্রিকার ধনীতম মহিলা, জারি হচ্ছে গ্রেফতারি পরোয়ানা

পাকিস্তানে শিশুদের উপর যৌন নির্যাতন ও শিশু পর্নোগ্রাফির জন্যও বলিউডকে দায়ি করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী।  ইউটিউবে ইমরানের এই বক্তব্য সামনে আসতেই তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। 

অন্যদিকে দেশে মাদক আশক্তি বেড়ে যাওয়ার জন্য প্রাথমিক কারণ হিসেবে মোবাইল ফোনকে দায়ী করেছেন ইমরান। তিনি বলেন, মোবাইল ফোনের মাধ্যেম দেশএর সামনে নতুন চ্যালেঞ্জ এসে উপস্থিত হয়েছে। ফোন সহজলভ্য হওয়ায় খারাপ জিনিস পৌছচ্ছে শিশুদের হাতেও।