জলকেও ভারত অস্ত্র করছে, শুরু করেছে 'পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধ', এমনই অভিযোগ পাকিস্তানের। বিষয়টি হল, সম্প্রতি সুতলেজ নদীর উপর আলচি বাঁধ থেকে ভারত জল ছাড়ায় পাক পঞ্জাবের বিস্তীর্ণ এলাকায় বন্যা হয়েছে। আর পাকিস্তানের অভিযোগ, জল যে ছাড়া হবে তা আগে থেকে ইসলামাবাদকে জানায়নি নয়াদিল্লি। ফলে বিপুল ক্ষতির মুখে পড়েছে পাকিস্তান। এইভাবে ভারত পাকিস্তানকে অর্থনৈতিক দিক থেকে কোনঠাসা করার চেষ্টা করছে বলেও বিবৃতি দেওয়া হয়েছে।

সুতলেজ নদীর উৎস ভারতে হলেও তারপর পাক পঞ্জাবের মধ্য দিয়ে বয়েছে। আচমকা সুতলেজ নদীর জলস্তর বেড়ে গিয়ে এই প্রদেশের বহু এলাকাই আপাতত জলমগ্ন। পঞ্জাব প্রভিন্সিয়াল ডিসাস্টার ম্যানেজেন্ট অথোরিটির ডিরেক্টর জেনারেল জানিয়েছেন, ভারত আগে থেকে জল ছাড়ার খবর না দেওয়ায় তারা প্রয়োজনীয় প্রস্তুতিও নিতে পারেনি।  

পাকিস্তানের ওয়াটার অ্যান্ড পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট অথোরিটির চেয়ারম্যান মুজাম্মিল হুসেনের অভিয়োগ, ভারত একদিকে কূটনৈতিকভাবে পাকিস্তানকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা করছে, আর অন্যদিকে অর্থনৈতিকভাবেও শ্বাসরোধ করার চেষ্টা করছে। কৃষি এবং সেচ সরাসরি জলের উপর নির্ভরশীল। কাজেই বন্যার ফলে অর্থনীতির উপর বড় প্রভাব পড়ে। একে তিনি পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধ বলেছেন।

এই নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় জলসম্পদ দফতর বা বিদেশ দফতরের তরফে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। জল ছাড়ার সিদ্ধান্তের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত এক সরকারি আধিকারিক জানিয়েছেন, এই জল ছাড়া 'রুটিন এক্সারসাইজ' বা সাধারণ ঘটনা। তবে তিনি এও বলেছেন, ভারতের সদিচ্ছা ছিল বলেই আগে পাকিস্তানকে খবর দেওয়া হত। কিন্তু সেইসব ভাল দিন এখন অতীত।