অবাককাণ্ড পাকিস্তানে। মুলতানের একটি শহরে ব্যস্ত রাস্তার ওপর দিয়ে তীব্র গতিতে গাড়ি ছুটিয়ে চলেছে পাঁচ বছরের এক শিশু। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ৭২ সেকেন্ডের ক্লিপিং-এ এখন ভাইরাল। তবে তা শুধু পাকিস্তানের মধ্যেই সীমাবন্দ নেই। দেশকালের গণ্ডী ছাড়িয়ে বিশ্ববাসীর মন কেড়ে নিয়েছে পাঁচ বছরের ক্ষুদে চালক। কিন্তু একই সঙ্গে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে শিশুটির নিরাপত্তা নিয়ে। 

কী রয়েছে ভিডিওটিতে? 

পাকিস্তানের দুনিয়া নিউজ নামে একটি সংস্থার প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, পাঁচ বছরের শিশুটি মুলতালের বোসান রোডে টয়োটা ল্যান্ড ক্রুজার চালাচ্ছে। এটি একটি অবাককরার মত ঘটনা। একটি শিশু কী করে তা পারে? কারণ এসইউভি-র প্যাডেল স্পর্শ করা পাঁচ বছরের একটি শিশুর কাছে কোনও মতেই সম্ভব নয়। কিন্তু গাড়িটিকে কোনও প্রাপ্ত বয়েস্কো ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু তালহা নামে ট্যুইটার ব্যবহারকারী ছবিটি পোস্টা করার সময় লিখেছেন, মুলতালে ল্যান্ড ক্রুজার চালাচ্ছে এক পাঁচ বছরের শিশু। তার পা কি প্যাডেলগুলি স্পর্শ করেছে?

নেটিজেনদের কাছে মজার খোরাক পদ্মশ্রী চিকিৎসক, ভাইরাল স্ত্রীর সঙ্গে তাঁর ফোনালাপ ...

'সন্ত্রাসবাদীরা'ই উস্কে দিয়েছে আন্দোলনকারী অন্নদাতাদের, কৃষকনেতাদের ছাড়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিল্ল...

বিতর্কি তৈরি হয়েছে। কিন্তু তারই মধ্যে অনেক নেটিজেন রীতিমত উপভোগ করেছেন পাঁচ বছরের শিশুর কেরামতি। পাসাপাশি  অনেকেই আবার শিশুটির সুরক্ষার জন্য উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। অনেকেই আবার তাঁর বাবা ও মায়ের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। শিশুকে নিয়ে গাড়ি চালানোর জন্য অনেকেই অভিভাবকদের শাস্তি দেওয়ার কথা বলেছেন।


ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই বোসান রোডে ডিউটিতে থাকা ট্রাফিক পুলিশ রাস্তার সিটিটিভি ফুটেজের সাহায্যে গাড়ির নম্বর ও মালিককে সনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওওয়ার কথা বলেছে বলেও জানিয়েছে পারিস্তানের সংবাদ সংস্থা।