একটা সময় ছিল যখন ক্রিকেট, ফুটবল,হকির মত নামকরা খেলা ছাড়া অন্য কোনও স্পোর্টস প্রচারের আলোয় আসত না। কিন্তু বর্তমানে যুগ পাল্টেছে। অন্যান্য খেলাও উন্নতি ঘটিয়ে উটে এসেছে প্রথম সারিতে। যার ফলে সেই সমস্ত খেলাতেও, আশার জন্য আগ্রহী হয়ে উঠছে। তেমনই একটি স্পোর্টস হল স্কিইং। আর এই খেলার দেশের নাম উজ্জবল করছেন মানালির মেয়ে আঁচল ঠাকুর। দ্বিতীয় সোনা জিতে সকলকে তাক লাগিয়ে দিলেন তিনি।

'খেলো ইন্ডিয়া ন্য়াশানাল উইন্টার গেমস'-এ অংশ নিয়েছিলেন আঁচল ঠাকুর। দেশের বিভিন্ন প্রান্তের স্কিইং প্লেয়ারপাও অংশ নিয়েছিলেন এই প্রতিযোগিতায়। জম্মু-কাশ্মীরের গুলমার্গে আয়োজিত হয়েছিল এই প্রতিযোগিতা। সেখানে সকলকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থান অধিকার করেন আঁচল। এই নিয়ে তার কেরিয়ারের দ্বিতীয় স্বর্ণ পদক জয় করলেন তিনি। এই সাফল্যে খুশি আঁচল ও তার পরিবার। সকলকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন তিনি। আগামি দিনে দেশকে আরও সাফল্য এনে দেওয়াই লক্ষ্য আঁচলের।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে স্কিইং-এ দেশের হয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক পদক জিতে ইতিহাস গড়ছিলেন মানালির মেয়ে আঁচল ঠাকুর। হিমাচল প্রদেশের আঁচল ঠাকুরের এই অভূতপূর্ব কীর্তির পর স্বয়ং নরেন্দ্র মোদী লিখেছেন, "স্কিং প্রতিযোগিতায় আন্তর্জাতিক পদক জয়ের জন্য তোমাকে অভিনন্দন। তুরস্কে এফআইএস আন্তর্জাতিক স্কিং প্রতিযোগিতায় তোমার এই জয় দেশকে গর্বিত করেছে। আরও এগিয়ে যাও।" এবার 'খেলো ইন্ডিয়া ন্য়াশানাল উইন্টার গেমস'-এ সোনা জিতলেন আঁচল। আন্তর্জাতিক মঞ্চে শৈল কন্যার সাফল্য কামনায় গোটা দেশ।