রঞ্জি প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে বাংলা দলের ক্রিকেটাররা। কোচ অরুন লাল ও দলের ব্যাটিং পরামর্শদাতা ভিভিএস লক্ষ্মণের তত্ত্বাবধানে জোর কদমে চলছে প্রস্তুতি। তবে এবছর ক্রিকেট মরশুম শুরু হওয়ার আগে থেকেই মাঠে নেমে কঠোর অনুশীলন করেছে বাংলা দলের ক্রিকেটাররা। একই সঙ্গে ফিটনেস নিয়েও দলের ক্রিকেটারদের ওপর জোর দিয়েছেন বাংলার কোচ অরুণ লালও। তবে সব দিক থেকে প্রস্তুতি করলেও, দলগত পারফরম্যান্সে রয়ে গিয়েছে একাধিক খামতি। একদিনের বিজয় হাজারে ট্রফিতে গ্রুপ পর্যায়ের থেকে বিদায় নিতে হয়েছে বাংলাকে। একই সঙ্গে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতেও আসেনি সাফল্য। তবে রঞ্জির আগে সেই খরা কাটাতেই এবার অভিনব উদ্যোগ নিলেন বাংলার ব্যাটিং পরামর্শদাতা লক্ষ্মণ। ক্রিকেটারদের যোগাসন ও ধ্যান করালেন ভিভিএস।

 

 

সিএবি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় দ্বিতীয় ক্যাম্পাসের মাঠে দুদিন ধরেই চলছে বাংলা দলের অনুশীলন। প্রথম দিন লক্ষ্মণের পেপ টক দিয়ে নেটে অনুশীলন করেছে বাংলা। তবে দ্বিতীয় দিনে শুধু মাত্র পেপ টকেই থেমে রইলেন না লক্ষ্মণ। ক্রিকেটারদের মানসিকতা ও জেতার মনোভাব তৈরি করতে এবার মাঠেই ক্রিকেটারদের যোগাআসন করালেন প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটসম্যান। একই সঙ্গে নিজেদের মনোবল ঠিক রাখতে ধ্যানও করানো হল বঙ্গ ক্রিকেটারদের। ব্যাটে, বলে, ফিটনেস ও টেকনিকের দিক থেকে সেভাবে এখন পিছিয়ে নেই বাংলার ক্রিকেটাররা। তবে মাঠে নেমে জয়ের প্রাপ্তি একটুর জন্য হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে মনোজ-অভিমন্যুদের। এবার সেটা ঠিক করতেই বঙ্গ শিবিরে 'যোগা' যোগ আনলেন লক্ষ্মণ।

আরও পড়ুন, ফাইনালে অনূর্ধ্ব ২৩ বাংলা দল, লক্ষ্মণের তত্ত্বাবধানে রঞ্জির প্রস্তুতি অভিমন্যুদের

নেটে ব্যাট ও বোলিং অনুশীলন করতেও এদিন দেখা যায় বাংলার ক্রিকেটারদের। ব্যাটসম্যানদের ভুল-ঠিক বেশ খতিয়ে দেখছেন বাংলা দলের ব্যাটিং পরামর্শদাতা লক্ষ্মণ। তবে ব্যাট ও বলে মাঠে সাফল্য আসছে না কেন। সেটাই এখন বড় প্রশ্ন বাংলার ক্রিকেট মহলে। তবে আসন্ন রঞ্জি মরশুমের আগে লক্ষ্মণ ও অরুণ লালের সঙ্গে আরও কিছুদিন অনুশীলন করবে বাংলা দল। তবে এবার সাফল্য পাবে কি না বাংলার ক্রিকেটাররা সেটাই এখন দেখার। অপরদিকে, দলের সব ক্রিকেটাররা মাঠে এলেও, মাঠে আসছেন না পেস বোলার অশোক দিন্দা। দ্বিতীয় দিনের অনুশীলনেও গড় হাজির তিনি। তবে এই বিষয় নিয়ে দলের তরফ থেকে কোনও রকমের প্রতিক্রিয়া না করা হলেও, বেশ বিরক্ত কোচ অরুণ লাল সেটা এই মুহূর্তে স্পষ্ট।