বুধবার পিবিএলের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিলেন হায়দরাবাদ হান্টার্সের পিভি সিন্ধু এবং পুনে এসেসের ঋতুপর্ণা দাস। ম্যাচের ফলাফল বেশিরভাগ মানুষই আগে থেকে আন্দাজ করতে পেরেছিলেন। আর প্রত্যাশামতোই  তারকা শাটলারের কাছে হার মানতে হয় নবাগত ঋতুপর্ণাকে। যদিও হায়দরাবাদ হান্টার্স আগেই প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে যাওয়ায় এই ম্যাচ হয়ে দাঁড়িয়েছিল নিয়মরক্ষার। জয়ের মধ্যে দিয়ে এইবারের মতো পিবিএল মরশুম শেষ হল হায়দরাবাদের। 

সদ্য পৃথিবীর ১৪ নম্বর শাটলার বেইওয়ান ঝ্যাং-কে হারিয়ে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন ঋতুপর্ণা। বর্তমানে ঋতুপর্ণার র‍্যাঙ্ক ১০০। কিন্তু সিন্ধুর সামনে কোনওরকম বিপত্তি পেশই করতে পারলেন না হলদিয়ায় মেয়ে ঋতুপর্ণা। একপেশে ম্যাচ ১৫-৭, ১৫-৮ ফলাফলে জিতে নেন সিন্ধু। ম্যাচ তৃতীয় সেটে নিয়ে যাওয়ার কোনো সুযোগই দেননি সিন্ধু,  ঋতুপর্ণাকে। প্রথম থেকেই ঋতুপর্ণাকে চাপে রেখে খেলা শুরু করে সিন্ধু। প্রথম সেটে কোনওরকম লড়াই করতে পারেননি ঋতুপর্ণা। দ্বিতীয় সেটে কিছুক্ষণ লড়াই করার চেষ্টা করেন তিনি। সিন্ধুকে কোর্টের প্রতিটি কোণে দৌড়তে বাধ্য করছিলেন ঋতুপর্ণা। একসময় দুজনেই সমান জায়গায় ছিলেন (৬-৬)। কিন্তু ঐটুকুই, এর পর ম্যাচের দখল আবার নিয়ে নেন সিন্ধু। নিখুঁত টেনিস খেলে ২ সেটেই বার করে নেন ম্যাচ। ইতিবাচক ভাবে এইবারের পিবিএলে শেষ করেন সদ্য রাজনীতিতে যোগ দেওয়া তারকা শাটলার। এই ম্যাচের পর ঋতুপর্ণা অবশ্যই বুঝতে পারবেন যে ব্যাডমিন্টনের অনেক কিছুই এখনও তার জানতে বাকি। 

অন্য পিবিএলের ম্যাচে হায়দ্রাবাদের প্রিয়াংশু রেজওয়াত কে তিন সেটের লড়াইয়ে ১৫-১১, ১১-১৫, ১৫-১৩ ফলে হারান পিবিএলে নিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা মিঠুন মঞ্জুনাথ। ডাবলসে আগের ম্যাচে হারের পর পুনের চিরাগ শেট্টি এবং হেন্দ্রা সত্তবান ১৫-১২, ১৫-৯ ফলাফলে হারান বেন লেন এবং সেন ভ্যান্ডিকে।