তিনি কবে অবসর নেবেন তা এখনও কারোর জানা নেই। ভারতীয় জার্সিতে কবে আবার তাকে দেখা যাবে তা নিয়েও স্পষ্টভাবে কিছু বলা মুশকিল। অনেক বিশেষজ্ঞর মতে ভারতীয় ক্রিকেট টিম ধোনিকে ছাড়া চলতে শিখে গেছে। তাই এবার তরুণ উইকেটকিপারদের সময় দেওয়া উচিত বেশি করে। ভবিষ্যতের কথা ভেবে বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞই এই ধরনার সাথে কম বেশি একমত। এহেন ধোনিকে নিয়ে আরও একবার জল্পনা উসকে দিলেন ভারতীয় লেগস্পিনার যুজবেন্দ্র চাহাল।


ঘটনাটি ঘটে তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার জন্য অকল্যান্ড থেকে হ্যামিল্টন যাওয়ার সময় টিম বাসে। চাহাল তার নিজস্ব ইউ-টিউব চ্যানেলের পরবর্তী এপিসোডের জন্য ভিডিও বানানোর সময় একটি খালি সিট দেখিয়ে মন্তব্য করেন, এই সিটটিতে একজন কিংবদন্তি বসতেন, যার জন্য এখনও সিটটি খালি রাখা হয়েছে। চাহাল আরো বলেন দলের প্রত্যেক সদস্য এখনও তাদের মাহিভাই কে একইরকম ভালোবাসেন এবং তার অভাব অনুভব করেন। 

প্রসঙ্গত, ধোনিকে এই মাসেই বিসিসিআই তাদের এ-গ্রেড চুক্তি তালিকা থেকে ছেঁটে ফেলেছে। যা তার অবসর জল্পনাকে আরো উসকে দিয়েছে। ২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকেই ক্রিকেট থেকে সরে রয়েছেন মাহি। ২০১৯ এর শেষ দিকের কোনো ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি সিরিজে তাকে অংশ নিতে দেখা যায়নি। সম্প্রতি তিনি তার নিজের শহর রাঁচিতে প্র্যাকটিস শুরু করেছেন দেখা গেছে। কিন্তু তবু ঠিক কবে তিনি ভারতীয় দলে ফিরবেন বা আদেও ফিরতে পারবেন কিনা তা নিয়ে ধোঁয়াশা থেকেই যাচ্ছে। ফলে এই বছরে অস্ট্রেলিয়ায় হতে চলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ধোনি কে দেখার সম্ভাবনা ক্রমশই ক্ষীণ হয়ে আসছে। 

এদিকে হ্যামিল্টনে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে সুবিধাজনক অবস্থায় ভারত। প্রথম এবং দ্বিতীয় ম্যাচ যথাক্রমে ছয় এবং সাত উইকেটে জিতেছে তারা। দুর্ধর্ষ ফর্মে রয়েছেন স্ট্যান্ড-বাই উইকেটকিপার কে এল রাহুল। প্রথম ম্যাচে ব্যাটসম্যানরা দাপট দেখিয়েছিল। দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ে প্রধান ভূমিকা ছিল বোলারদের। কিন্তু পরপর দুটি ম্যাচ হেরে একেবারেই স্বস্তিতে নেই নিউজিল্যান্ড। তৃতীয় টি-টোয়েন্টি জিতে সিরিজে লড়াইয়ে ফিরতে মরিয়া তারা।