[18:23, 05/02/2020] ঋতব্রত CR7 দেব: পাকিস্তানের কাছে লজ্জাজনক পরাজয় ভারতের। ২০১৮ এর পর ২০২০ অনুর্ধ ১৯ বিশ্বকাপেও সেমি ফাইনালে ভারতের কাছে হেরে ছিটকে যেতে হলো পাক দলকে। পর পর দুবার অনুর্ধ ১৯ বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের কাছে হারতে হওয়ায় হতাশ পাক সমর্থকরা। ২০১৮ তে ভারতের করা ২৭২ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৬৯ রানে অল-আউট হয়ে যায় তারা। সেবার শতরান করে নায়ক হয়েছিলেন শুভমান গিল। আর এইবার ভারতের কাছে তাদের হারতে হলো ১০ উইকেটে। প্রথমে ব্যাট করে মাত্র ১৭২ রানে অল আউট হয়ে যায় পাকিস্তান। জবাবে ভারতের দুই ওপেনার যশস্বী জয়সওয়াল এবং দিব‍্যাংশ সাক্সেনা ব্যাট করতে নেমে বিনা উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে ফেলেন। টুর্নামেন্টে নিজের প্রথম শতরান করেন জয়সওয়াল।  তিনি অপরাজিত থাকেন ১০৫ রানে। ধৈর্যশীল ৫৯ রান করে অপরাজিত থাকেন সাক্সেনাও। 

কিন্তু এই হারের চেয়েও বেশি চর্চায় আসে ম্যাচের একটি ঘটনা। ওপেনার হায়দর আলির আউট হয়ে যাওয়ার পর ব্যাট করতে নামেন কোয়াসিম আক্রম। অধিনায়ক রোহেল নাজিরের সাথে তার জুটি বেঁধে ব্যাট করাকালীন ঘটে এই ঘটনা। কোয়াসিমের শর্ট রানের কলে সাড়া দিয়ে প্রথমে এগিয়ে এসেও পরে ফিরে যান নাজির। কোয়াসিমও এগিয়ে যান একই প্রান্তের দিকে। দুজনেই বোলার প্রান্তের দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় উইকেট ভেঙে দেন উইকেটকিপার। 

এই আশ্চর্য রান আউট ঘিরে হাসির রোল উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। এর আগেও পাকিস্তান দলের ক্রিকেটাররা হাস্যকর ভাবে রান আউট হয়েছিল। সেই সমস্ত প্রসঙ্গ তুলে এনে ব্যাঙ্গ করা হতে থাকে পাকিস্তানকে। টুইটারে অনেক ক্রিকেট ভক্ত ওই রান আউটটির ছবি দিয়ে মজার মজার মন্তব্য লেখেন। একজন বলেন "উল্টোপাল্টা ভাবে রান আউট হওয়া যদি একটি শিল্প হয় তবে পাকিস্তান সেই শিল্পের পিকাসো।" আবার আর এক জন রান আউট টিকে "সনাতন পাকিস্তানি শিল্প" বলেও মন্তব্য করেছেন।