ভারত-বাংলাদেশ ঐতিহাসিক টেস্টে গোলাপি বলে প্রথম শতরান করলেন বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। প্রথম দিনে টসে হারের পর ছথেকেই পিঙ্ক বলের টেস্টে মাঠ দাপাছে ভারতীয় ক্রিকেটাররা। প্রথম দিনে ভারতীয় পেসারদের দাপটে মাত্র ১০৬ রানেই শেষ হয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের ইনিংস। তারপর চা বিরতির আগেই ব্যাট হাতে নামেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। প্রথম দিনে তিন উইকেট হারালেও মাঠে অধিনায়কের ইনিংস খেলছিলেন বিরাট কোহলি। আর সেই সুবদে দ্বিতীয় দিনে দলের হয়ে হাল ধরলেন বিরাট-রাহানেরা। শনিবার খেলার দ্বিতীয় দিনে মধ্যাহ্নভোজ বিরতি পর্যন্ত কোহলির ব্যাট প্রায় নাচালো বাংলাদেশের বোলারদের। মধ্যাহ্নভোজ বিরতিতে ২৮৯ রানে ৪ উইকেট ভারতের। ১৮৩ রানে এগিয়ে ভারত। ক্রিজে আছেন বিরাট ও জাদেজা।


প্রথম দিনের খেলা ভারতীয় দল শেষ করেছিল ১৭৪ রানে। ৩ উইকেট হারিয়ে প্রথম দিনে বাংলাদেশের থেকে ৬৮ রানে এগিয়ে ছিল ভারত। ক্রিজে ছিলেন ভারতের দুই ভরসা যোগ্য ব্যাটসম্যান রাহানে ও কোহলি। প্রথম দিনেই ব্যাট করতে নেমে নিজের অর্ধশতরান করে ফেলেছিলেন বিরাট। ৭৬ বলে ৫০ রান পূরণ করেছিলেন তিনি। আর সেই সঙ্গে দ্বিতীয় দিনে ১৫৯ বলে নিজের শতরান পূরণ করলেন কোহলি। একই সঙ্গে শনিবার ইডেনে অর্ধশতরান করলেন অজিঙ্কা রাহানেও। তবে ৬১.১ ওভারের মাথায় ৫১ রানেই ফিরে যান রাহানে।

অপরদিকে, অধিনায়ক হিসাবে দলের দায়িত্ব নিয়ে একদিক থেকে খেলতে থাকেন অধিনায়ক কোহলি। রাহানে ফিরে যাওয়ার পর মধ্যাহ্নভোজ বিরতির আগে কোহলি জুটি বাঁধেন জাদেজার সঙ্গে। নিজের এই শতরানের সুবাদে টেস্ট ক্রিকেটে ২৭টি শতরান সেরে ফেললেন কোহলি। একই সঙ্গে অধিনায়ক হিসাবে ২০টি শতরান করেলেন তিনি। সেই সুবাদে মধ্যাহ্নভোজ বিরতিতে ১৮৩ রানে এগিয়ে ভারতীয় দল।