Asianet News BanglaAsianet News Bangla

cVIGIL App: ভোটের কারচুপির ফুটেজ বা ছবি সরাসরি পাঠান কমিশনে, জেনে নিন কি করতে হবে

নির্বাচনে যে কোনও ধরনের বিশৃঙ্খলা হলে ব্যবস্থা নেবে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনের অনিয়মের অভিযোগ বারবার আসছে। কমিশনের নজরে আসার পর ব্যবস্থাও নেওয়া হয়। সাধারণ নাগরিকও নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ সরাসরি কমিশনে জানাতে পারেন। এর জন্য কমিশন cVIGIL অ্যাপ তৈরি করেছে।
 

Election Commission's 'cVIGIL' App Send footage or pictures of vote rigging directly to the commission BDD
Author
Kolkata, First Published Jan 9, 2022, 12:56 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাব ও উত্তরাখণ্ড সহ দেশের ৫টি রাজ্যে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ মার্চ পর্যন্ত ৭ দফায় ভোট হবে। ফলাফল ঘোষণা করা হবে ১০ মার্চ। এদিকে নির্বাচনে যে কোনও ধরনের বিশৃঙ্খলা হলে ব্যবস্থা নেবে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনের অনিয়মের অভিযোগ বারবার আসছে। কমিশনের নজরে আসার পর ব্যবস্থাও নেওয়া হয়। সাধারণ নাগরিকও নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ সরাসরি কমিশনে জানাতে পারেন। এর জন্য কমিশন cVIGIL অ্যাপ তৈরি করেছে।
নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগও করা যাবে নির্বাচন কমিশনে। অনেক সময় ভোটের ভুল প্রমাণের অভাবে অন্যায়কারী হাত থেকে পালিয়ে যায়। কিন্তু সি-ভিজিল অ্যাপের মাধ্যমে প্রমাণ হিসেবে ফটো ও ভিডিও সংরক্ষণ করা যায়, যা কর্মের ভিত্তি হয়ে দাঁড়ায়।
সি-ভিজিল অ্যাপ কি?
সি-ভিজিল হল একটি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইফোন অ্যাপ্লিকেশন, যা বিজ্ঞপ্তির তারিখ থেকে আচরণবিধি লঙ্ঘনের রিপোর্ট করার জন্য ব্যবহৃত হয়। নির্বাচনে অনিয়ম ঠেকাতে এই অ্যাপ তৈরি করেছে নির্বাচন কমিশন। এই অ্যাপের সাহায্যে, লোকেরা নির্বাচনী রাজ্যগুলিতে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ জানাতে পারে। এই অ্যাপটি সকল Android এবং iOS ব্যবহারকারীদের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। গত ৩ বছর ধরে, এই অ্যাপটি লোকসভা এবং বিধানসভা সহ সমস্ত ধরণের নির্বাচনে ব্যবহার করা হচ্ছে। এটি প্লে স্টোর থেকে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা এবং অ্যাপল স্টোর থেকে আইফোন ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করতে পারেন।
 কিভাবে একটি অভিযোগ করতে পারি?
এই অ্যাপে অভিযোগ করার জন্য ব্যবহারকারীর অবশ্যই একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বা একটি আইফোন থাকতে হবে। এর জন্য ক্যামেরা, ইন্টারনেট সংযোগ এবং জিপিএস অ্যাক্সেস প্রয়োজন। যে কোনও নাগরিক ঘটনার কয়েক মিনিটের মধ্যে আচরণবিধি লঙ্ঘন, ভোটে অনিয়মের অভিযোগ জানাতে বা রিপোর্ট করতে পারেন। এর জন্য তাদের রিটার্নিং অফিসারের কাছেও যেতে হবে না।
অ্যাপটি ইনস্টল করার পরে, আপনাকে আপনার নাম, ঠিকানা, রাজ্য, জেলা, সমাবেশ এবং পিনকোড দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে।
অভিযোগ করার জন্য এটি একটি OTP-এর সাহায্যে যাচাই করা হবে। ভেরিফিকেশনের পর ফটো বা ক্যামেরা সহ অপশন সিলেক্ট করতে হবে।
আপনি অ্যাপে ২ মিনিট পর্যন্ত একটি ফুটেজ বা ভিডিও আপলোড করতে পারেন। ছবি বা ভিডিও সম্পর্কিত বিশদ বিবরণ প্রাসঙ্গিক কলামে পূরণ করতে হবে।
নির্বাচন কমিশনও ছবি/ভিডিওর অবস্থান জানতে পারে। এর পরে আপনি একটি অনন্য আইডি পাবেন, যার মাধ্যমে আপনি আপনার অভিযোগ ট্র্যাক করতে পারবেন।
১০০ মিনিটের মধ্যে স্বীকৃতি নেওয়ার দাবি
অভিযোগ করার পরে, তথ্য জেলা নিয়ন্ত্রণ কক্ষে পাঠানো হয়, যেখানে এটি মাঠ ইউনিটের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সি-ভিজিল অ্যাপে অভিযোগকারীর আপলোড করা সমস্ত ছবি, ভিডিও এবং ডেটা ৫ মিনিটের মধ্যে স্থানীয় নির্বাচন অফিসারের কাছে পাঠানো হবে। কমিশন দাবি করেছে যে অভিযোগটি সত্য প্রমাণিত হলে, এটি বিবেচনা করা হবে এবং ১০০ মিনিটের মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দয়া করে মনে রাখবেন যে এই অ্যাপে রেকর্ড করা ভিডিও বা ফটো আপনার ফোন গ্যালারিতে সংরক্ষিত হয় না। অভিযোগকারীর যাতে কোনও ঝামেলা না হয় সেজন্য অভিযোগকারীর পরিচয় গোপন রাখা হয়।

আরও পড়ুন: Importance of IMEI Number: আইএমইআই নম্বর ব্যবহার করে ফোন খুঁজবেন কীভাবে

আরও পড়ুন: Reality GT 20 series Launch: বিশ্বের প্রথম ১৫০ ডিগ্রি ভিউ ক্যাপচার ফোন লঞ্চ, জেনে নিন এর স্পেসিফিকেশন

আরও পড়ুন-Tecno pova Launch: এই সংস্থার প্রথম 5G মোবাইল ভারতে আসছে, লঞ্চের আগে ফাঁস হল ফিচারগুলি

আরও পড়ুন-IT Raid: চিনা মোবাইল সংস্থার বিরুদ্ধে তল্লাশি অভিযান, আয়কর ফাঁকির অভিযোগ

আরও পড়ুন-New Year’s Eve 2021: পার্টি টুপি পরে চমক দিল গুগল, ডুডলের নতুন গ্রাফিক্স নজড় কেড়েছে সকলের

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios