নোকিয়া শীঘ্রই ভারতে তার নতুন মিড-রেঞ্জের স্মার্টফোন নোকিয়া ৫.৩ লঞ্চ করতে পারে। এটি নোকিয়া ইন্ডিয়ার অফিশিয়াল পেজে  নিশ্চিত করা হয়েছে। এই পেজে সাইন-আপের বিকল্পটিও ধরা পড়েছে। এই তালিকার মাধ্যমে ফোনের পুরও স্পেসিফিকেশন প্রকাশিত হয়েছে এবং আশা করা হচ্ছে যে ফোনটির দামও শিগগিরই প্রকাশিত হবে। নোকিয়া ৫.৩ আন্তর্জাতিক বাজারে ইতিমধ্যে লঞ্চ করেছে। সংস্থার এই ফোন তিনটি রঙের ভেরিয়েন্টে পাওয়া যাচ্ছে। ব্যবহারকারীদের নোকিয়ার নতুন ডিভাইসে শক্তিশালী বৈশিষ্ট্য দেওয়া হবে যা নোকিয়ার অফিসিয়াল পেজে নিশ্চিত করা হয়েছে। জেনে নেওয়া যাক নোকিয়া ৫.৩ স্মার্টফোনের বিস্তারিত স্পেসিফিকেশন।

এই ফোনে ৬.৫৫ ইঞ্চি এলসিডি প্যানেল থাকবে, তাতে সেলফি ক্যামেরার জন্য ওয়াটারড্রপ নচ দেওয়া হয়েছে। এই স্ক্রিনটি এইচডি + রেজোলিউশন এবং ২০:৯ এর অনুপাতে আসবে। ফোনটিতে স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ প্রসেসর এবং ৬ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম দেওয়া যেতে পারে। ফোনটিতে ৮ জিবি স্টোরেজ পাওয়া যাবে যা মাইক্রোএসডি কার্ডের সাহায্যে বাড়ানো যেতে পারে। এই ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ এ কাজ করবে এবং এটি পরবর্তী ২ বছরের জন্য সফ্টওয়্যার আপগ্রেড পেতে থাকবে।

ক্যামেরার হিসেবে এই ফোনে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ নিয়ে আসবে। এর রিয়ার প্যানেলে একটি গোল মডিউল রয়েছে, যার মধ্যে ১৩-মেগাপিক্সেল প্রাথমিক সেন্সর, ৫-মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড সেন্সর, ২-মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর এবং একটি ২-মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স রয়েছে। সেলফি তোলার জন্য ফোনটিতে একটি ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকবে।

অনেক রিপোর্টে বলা হচ্ছে যে ভারতে এই ফোনের দাম প্রায় ১৭,০০০ টাকা হতে পারে। এছাড়াও, দ্য মোবাইল ইন্ডিয়ায় জানা গেছে যে নোকিয়া ৫.৩ এই মাসে অগাস্টে ভারতে লঞ্চ হতে পারে। পাওয়ারের জন্য, নোকিয়া ৫.৩ এ ৪০০০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে, এটি ফাইব ওয়াট / ২ এ চার্জিং সমর্থন-সহ আসে। সংস্থাটি দাবি করেছে যে এটি একবার ফুল চার্জে ২ দিন ধরে অর্থাৎ ৪৮ ঘন্টা ধরে অবিচ্ছিন্নভাবে চলতে পারে। ফোনের রিয়ার প্যানেলে একটি ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার পাওয়া যাবে এবং ইউএসবি টাইপ-সি সংযোগ দেওয়া হবে। ফোনের ডিভাইসে গুগল অ্যাসিসটেন্স অ্যাক্সেস করার জন্য একটি বটন দেওয়া হয়েছে।