নয়া ফিচার্স নিয়ে হাজির হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। একের পর এক পরিবর্তন হয়েই চলেছে হোয়াটসঅ্যাপে।  সম্প্রতি মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ প্রাইভেসি পলিসি আপডেট করেছে। এবং সেই পলিসি ধীরে ধীরে  সমস্ত ব্যবহারকারীদের কাছে আনা হচ্ছে।  ব্যবহারকারীদের এই নতুন নীতি গ্রহণের জন্য ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত সময় দিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। এই সময়ের মধ্যেই  পলিসি গ্রহণ করতে হবে, তা না হলেই ডিলিট হবে  আপনার অ্যাকাউন্ট।

আরও পড়ুন-আখের গুড় না খেজুরের গুড়, শীতের পিঠেপুলি পাতে পড়ার আগে চিনে নিন খাটি গুড়...

সমস্ত হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের  এই নতুন নীতি অবশ্যই গ্রহণ করতে হবে। যদিও এখন পর্যন্ত নট নাউ এর অপশন পাচ্ছেন ব্যবহারকারীরা । কিন্তু কিছুদিন পর থেকে তা আর থাকবে না বলেই জানা যাচ্ছে। নতুন পলিসিতে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের একত্রীকরণে আরও বেশি করে জোর দেওয়া হবে।

 

 

 

 

 

গত মঙ্গলবার থেকেই গ্রাহকরা বিজ্ঞপ্তি পেতে শুরু করেছে। অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস-এ তা চলে এসেছে। বিজ্ঞপ্তিটিতে তিনটি ক্ষেত্রে আপডেটের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। প্রথমত, হোয়াটসঅ্যাপ পরিষেবা ও গ্রাহকের তথ্য প্রসেসিং। দ্বিতীয়ত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলি কীভাবে ফেসবুকের পরিষেবা ও হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট সংরক্ষণ করতে পারবে। এবং তৃতীয়ত, ফেসবুকের সঙ্গে অংশীদারি কী রকম। এই নিয়েই বাড়ছে জল্পনা। 

 

 

হোয়াটসঅ্যাপের এনক্রিপটেড বার্তা এবং ফেসবুকের খোলা খাতার মধ্যে একটি স্থায়ী যোগসূত্র গড়ে তোলা হচ্ছে, ব্যবসা সংস্থাগুলির জন্য। হোয়াটসঅ্যাপের পক্ষ থেকে সরাসরি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, গ্রাহকদের নাম, ফোনের তথ্য, ফোন নম্বর, আইপি অ্যাড্রেস, এবং গ্রাহকদের বার্তা বিনিময়ের ধরণধারণ, লেনদেনের তথ্য,  এবার থেকে ফেসবুকের অন্য সংস্থাগুলির সঙ্গে ভাগ করে নেবে। সেটা কখনও অনুমতি নিয়ে আবার কখনও সরাসরি। এবার থেকে বিপুল সংখ্যক হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর তথ্য সরাসরি খুলে দেওয়া হচ্ছে ফেসবুকের কাছে।


 

 

নয়া পলিসিতে হোয়াটসঅ্যাপ আপডেট করার সময় তাতে কিছু জিনিস লেখা আসবে, তা ঠিকমতো পড়ে নেওয়া সকলের জন্য ভীষণ জরুরি। যদিও  বিকল্প কোনও অপশন নেই।  

 

 

উল্লেখ্য, চলতি বছরে বেশ কিছু ফোনে বন্ধ হয়ে গিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। তালিকায় রয়েছে এইচটিসি ডিজায়ার, এলজি অপটিমাস, মোটরওয়ালা ড্রয়েড রেজার, স্যামসং গ্যালাক্সি এসটু। যদি এখনও এগুলিতে হোয়াটসঅ্যাপ কাজ করে তবে যে কোনও দিন কিন্তু আর কাজ নাও করতে পারে হোয়াটসঅ্যাপ। সম্প্রতি  কিছুদিন আগে নয়া ফিচার্স নিয়ে হাজির হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। এবার থেকে সকলেই ব্যবহার করতে পারেন অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ 'হোয়াটসঅ্যাপ পে'। ইতিমধ্যেই প্রাথমিক পর্যায়ে ২ কোটি মানুষ এই হোয়াটসঅ্যাপ পে ব্যবহার করতে পারবেন। দেশের প্রায় ৪০ কোটি মানুষ এই হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন।