টিকটক সহ ৫৯ টি চিনা অ্যাপ বন্ধ করার করেছে ভারত সরকার। তারপর থেকেই মাথায় হাত পড়েছে টিকটক ব্যবহারকারীদের। একদিকে লকডাউন আর তার উপরে বিনোদনের  রসদ হিসবে সকলেই বেছে নিয়েছিল জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক-কে। একদিকে টিকটক নিষিদ্ধ করার পর থেকেই গ্রাহকদের অবস্থা শোচনীয় হয়েছে। অন্যদিকে ভারতীয় টেক মার্কেটে নতুন করে প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। টিকটকের বিপুল জনপ্রিয়তাকে ধরে রাখতে দেশিয় অ্যাপ রোপোসো, চিঙ্গারির পাশাপাশি এবার ময়দানে নামতে চলেছে জি ফাইফও। হাইপি নামের দেশিয় অ্যাপ নিয়ে আসতে চলেছে জি ফাইভ।

আরও পড়ুন-বড় ধামাকা, অ্যামাজন-ফ্লিপকার্টের পর এবার বিগবাজার কিনতে চলেছেন আম্বানি...

টিকটকের দিন শেষ। কিন্তু টিকটক প্রেমীদের জন্য আশার আলো দেখাচ্ছে বেশ কিছু দেশিয় অ্যাপ। এবার এই দেশিয় অ্যাপগুলির মাধ্যমেই নিজেদের সুপ্ত প্রতিভাকে আবারও দেখানোর সুযোগ পাবেন তারা। জেনে নিন কী কী রয়েছে সেই তালিকায়। সবার আগেই রয়েছে মিত্রোঁ নামের দেশিয় অ্যাপটি। এছাড়াও  রোপোসো, চিঙ্গারি, ডাবস্ম্যাশ-এ দিকে ঝুঁকছে ব্যবহারকারীরা। গত ২৯ জানুয়ারি চিনা অ্যাপে নিষেধাজ্ঞার বিজ্ঞপ্তি জারি করে তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক। এবং সরকারের তরফে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, দেশের সার্বভৌমত্ব ও সুরক্ষার প্রশ্নে বিপজ্জনক এই চিনা অ্যাপগুলি। 

আরও পড়ুন-মাসের শুরুতেই বড় ধাক্কা, সোনার পাশাপাশি ৫০ হাজার ছাড়াল রূপোর দামও...

বর্তমান পরিস্থিতিতে রোপোসো, চিঙ্গারির পাশাপাশি আসছে হাইপি।  চলতি মাসের আগামী ১৫ জুলাই থেকে আসছে ভারতের এই শর্ট ভিডিও প্ল্যাটফর্ম। জানা যাচ্ছে, টিকটকের থেকে এই প্ল্যাটফর্মটি অনেক ক্ষেত্রেই আলাদা হবে।  টিকটকের মতোই মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট থাকবে এই দেশিয় অ্যাপে। টিকটকের ক্ষেত্রে ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে রেজিষ্ট্রেশন না লাগলেও এখানে ভিডিও দেখা ও তৈরি করা উভয় ক্ষেত্রে রেজিষ্ট্রেশন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সেরা ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মের মধ্যে  ভারতের অন্যতম  জি ফাইভ ।  সিরিয়াল থেকে সিনেমা ও ওয়েব সিরিজ দেখার সুবিধা রয়েছে। আমাজন, নেটফ্লিক্স এর মত প্ল্যাটফর্মের সাথেও বর্তমানে  টক্কর চালাচ্ছে জি ফাইভ।