মার্চ মাসের শুরু থেকেই তুষার ঝড় শুরু হয় অরুণাচল প্রদেশের একাধিক জায়গায়। শীতের শেষ পাতে বরফ পেতে পর্যটকেরাও ভিড় জমায় সেখানে। কিন্তু ক্রমেই পরিস্থিতি জটিল হয়ে ওঠে। শনিবার বিকেল থেকে হালকা তুষারপাত ভয়াবহ আকার ধারণ করে। ১৪ হাজার ফুট উচ্চতায় আটকে পড়ে প্রায় ৩৯০ জন পর্যটক। স্থানীয় প্রশাসন মুহূর্তের মধ্যে তৎপরতা দেখায়। কিন্তু ফল মেলে না তাতে। 

আরও পড়ুনঃ রাতের দিকে কী ধরনের খাবার আর পানীয় এড়িয়ে চলা উচিত

আরও পড়ুনঃ কলকাতার বুকে এমন কিছু ঠিকানা, যেখানে পাবেন উন্নতমানের ভাঙ

শনিবার রাতেই ভারতীয় সেনা নেমে পড়ে উদ্ধার কাজে। বরফ কেটে শুরু হয় রাস্তা করা। সেখান থেকেই পর্যটকদের নামিয়ে আনার কাজ শুরু হয়। কিন্তু বরফের আস্তরণ এতই বেশি থাকে যে আটকদের কাছে পৌঁছতে সময় লেগে যায় প্রায় ১৬-১৭ ঘণ্টা। হাজারও প্রচেষ্টার পর রবিবার বিকেলে পর্যটকদের নামিয়ে আনার কাজ শুরু করেন সেনারা। 

 

 

বর্তমানে সকল পর্যটকদের নিরাপদে নিয়ে নামিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। মার্চ মাসের এক তারিখেও একই পরিস্থিতির কবলে পড়তে হয় পর্যটকদের। সেদিনও ১১১ জন পর্যটককে উদ্ধার করে ভারতীয় সেনা। প্রবল তুষার পাতের ফলে গোটা অরুণাচল প্রদেশের তাপমাত্রাও মাইনাসে নেমে যায়। তবে এখন পরিস্থিতি খানিকটা স্বাভাবিক।