পুজোর ভ্রমণ মানেই বড় কোনও ট্রিপের পরিকল্পনা করা। কিন্তু করোনার কবলে পড়ে দূরে কোথাও নয়, কাছে পিঠেই ছোটখাটো প্ল্যান করে বাড়ি ছেড়েছিলেন অনেকেই। একে তো পুরো ভ্রমণে ইচ্ছে থাকলেও বড় কোনও পরিকল্পনা করা হয়নি, পাশাপাশি কলকাতার ভিড় এড়ানোটাও ছিল বেশ কিছু পরিবারের লক্ষ্য। কিন্তু সেখানে গিয়েও এবার মিলছে না স্বস্তি। বৃষ্টিতে ভাসতে চলেছে সমুদ্র উপকূল। 

সমুদ্র উপকূলে সৃষ্টি হওয়া গভীর নিম্নচাপের জেরেই ষষ্ঠী থেকে আকাশের মুখ ভার। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে মাত্র ৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে অক্ষরেখা। ইতিমধ্যেই প্রবল জলোৎচ্ছাসের ছবি ধরা পড়েছে দিঘাচত্বরে। পর্যটকদের জলে নামতে মানা করা হয়েছে। সতর্কতা জারি করা হয়েছে পারে বসার থেকেও। যার ফলে বুকিং থাকলেও অনেকেই ফিরে আসার পরিকল্পনাই করছেন। আর যাঁরা সপ্তমীতে শহর ছাড়ার কথা ভেবেছিলেন, তাঁরাও পরিকল্পনা বাতিল করার পথে। 

মাঝ সমুদ্রে থাকা ট্রলারদেরও শীঘ্রই ফিরে আসার জন্য চলছে মাইকিং। গভীর নিম্নচাপের জন্য পরিস্থিতি কঠিন হয়ে ওঠায় পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছিল। পর্যটক শূণ্য দিঘা খানিক হলেও আশার আলো দেখছিল পুজোয়। কিন্তু সেখানেও কোপ বসালো আবহাওয়া। দশমী পর্যন্ত আবহাওয়া স্বাভাবিক হওয়ার কোনও সম্ভাবনাই নেই। ফলে বেজায় বিপাকে এবার পুজো পরিস্থিতি।