Asianet News Bangla

ভাইরাল প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বুশের মেয়ের ইসলামে দীক্ষার ভিডিও, সত্যি না ভুয়ো দেখুন তো

অনেকেই মনে করেন, প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লু বুশ ইসলামের শত্রু

তাঁর কন্যাই কি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন

একটি ভিডিও সোশ্য়াল মিডিয়ায় শোরগোল ফেলে দিয়েছে

ভিডিওটি কি সত্যিকারের না ভুয়ো

 

Fact Check, did George W Bush's daughter convert to Islam
Author
Kolkata, First Published Jun 12, 2020, 5:42 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ইসলামি চরমপন্থীরা তো বটেই, মূল ধারার মুসলিমদেরও অনেকেই প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লু বুশ-কে ইসলামের শত্রু বলে মনে করেন। মবলত, সন্ত্রাস দমনের নামে আফগানিস্তান ও ইরাকে যুদ্ধ ঘোষণার জন্যই তাঁর এই পরিচিতি। এহেন রিপাবলিকান পার্টির নেতার কন্যাই কি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন? ১ মিনিট ৩৯ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সোশ্য়াল মিডিয়ায় সোরগোল ফেলে দিয়েছে।

ওই ভিডিও-য় দেখা যাচ্ছে মাথার হিজাব পরা এক মহিলা ও এক অজ্ঞাত পুরুষ একটি চেবিলে বসে আছেন। ওই মহিলা, পুরুষটির সঙ্গে কিছু ধর্মীয় বাক্য আউরাচ্ছেন। মহিলাকে বেশ কয়েকবার আবেগমথিত হয়ে পড়তে দেখা যায়। ভিডিও-র সঙ্গে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, 'মুসলিমদের সবচেয়ে বড় শত্রু প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি জর্জ বুশের কন্যা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন। অভিনন্দন বোন। ঈশ্বর আপনার মঙ্গল করবেন'।

এরপরই এই নিয়ে সাড়া পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রাক্তন মার্কিন রাষ্ট্রপতি জর্জ ডব্লু বুশের যমজ কন্যা রয়েছে- বারবারা পিয়ার্স বুশ এবং জেনা বুশ হাগার। বারবারা একটি অলাভজনক স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা এবং অধিকারকর্মী। আর জেনা একজন সাংবাদিক, বর্তমানে এনবিসি চ্যানেলের অ্যাঙ্কর। ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে বর্তমান মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প অস্থায়ীভাবে সাতটি মুসলিম দেশ থেকে অভিবাসন স্থগিত করার পর, প্রকাশ্য়েই তাই নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন জেনা। এই নিয়ে টুইট-ও করেন। তাহলে কি সত্যিই জর্জ ডব্লু বুশের মেয়ে মুসলিম হয়ে গেলেন?

জেনা বুশ হাগার এবং বারবারা পিয়ার্স বুশ

এশিয়ানেট নিউজ বাংলার পক্ষ থেকে ভিডিওটির কয়েকটি ফ্রেম নিয়ে গুগল সার্চ ইঞ্জিনে বিপরীত তথ্যানুসন্ধান করেছে। তাতে দেখা গিয়েছে এই ভিডিওটি অন্তত ছয় বছর আগে ইন্টারনেটে প্রকাশ হয়েছিল। সেই সময় বলা হয়েছিল ওই মহিলা একজন রোমানিয়ান মহিলা। ভিডিওটি তাঁর ইসলাম গ্রহণের ভিডিও। ইউটিউবে ২০১৪ সালে আপলোড করা ভিডিওটির একটি দীর্ঘ সংস্করণ-ও পাওয়া গিয়েছে। তবে ওই মহিলার সঠিক পরিচয় নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। তবে জর্জ বুশের দুই কন্যার সঙ্গেই ভিডিও-র ওই মহিলার ক্লোজআপ শটের তুলনা করে দেখা হয়েছে। কোনও মিল পাওয়া যায়নি। মার্কিন কোনও সংবাদমাধ্যমেও এই নিয়ে কোনও সংবাদ পাওয়া যায়নি।

কাজেই জর্জ ডব্লু বুশের দুই কন্যার কেউই ইসলামে ধর্মান্তরিত হননি, এটা পরিষ্কার। স্পষ্টতই ভাইরাল ভিডিওয় যে মহিলাকে দেখা যাচ্ছে তিনি আর যেই হোন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্টের মেয়ে নন। অর্থাৎ ভাইরাল হওয়া ভিডিওর সঙ্গে যে দাবি করা হচ্ছে তা ভুয়ো।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios