গত কয়েকদিনের তুলনায় রবিবার করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা কিছুটা হলেও কমল আমেরিকায়। গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড ১৯ মার্কিন মুলুকে  প্রাণ কেড়েছে  ৭৭৬ জনের। ফলে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা হয়েছে ৮০ হাজার ৭৮৭। তবে সংক্রমণের সংখ্যা একলাফে অনেকটাই বেড়ে গেল আমেরিকায়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ২০,২৪১। যার ফলে আমেরিকায় সংক্রমণের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৩ লক্ষ ৬৭ হাজার ৬৩৮। 

এদিকে হোয়াইট হাউসে থাবা বসিয়েছে করোনা ভাইরাস। ট্রাম্পের পরিচারকের পর সংক্রমণের শিকার হয়েছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের  প্রেস সচিব কেটি মিলার। তারপরেও অবশ্য সেলফ কোয়ারেন্টাইনে যেতে রাজি নন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট। এমনকি সোমবার তিনি হোয়াইট হাউসে আসবেন বলেও জানা যাচ্ছে। পেন্সের মুখপাত্র জানিয়েছেন, 'প্রায় প্রতিদিনই ভাইস প্রেসিডেন্টের সোয়াবের পরীক্ষা হচ্ছে। ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।' তবে আগামী কয়েকদিন পেন্সের নির্ধারিত কর্মসূচি একটু হালকা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন তাঁর মুখপাত্র।

এদিকে করোনাভাইরাস নিয়ে আবারও বিতর্কিত মন্তব্য করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এর আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছিলেন চলতি বছরের শেষের মধ্যেই ভ্যাকসিন বানিয়ে ফেলবে আমেরিকা। এবার তাঁর মন্তব্য, কোনও ভ্যাকসিন ছাড়াই নভেল করোনাভাইরাস বিদায় নেবে। চিকিৎসকদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই এমন দাবি তিনি করেছেন বলে হোয়াইট হাউসে জানান ট্রাম্প।

ব্রিটেনে মৃতের সংখ্যা ছাড়াতে পারে এক লাখ, লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে দিলেন বরিস জনসন

রেকর্ড গড়ে একদিনে আক্রান্ত ৪,২১৩, দেশে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ছাড়াল ৬৭ হাজারের গণ্ডি

তৃতীয় দফার লকডাউনের মধ্যেই খুলছে স্কুল, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে মিলল ছাড়পত্র

ট্রাম্প বলেন,  ‘এ ভাইরাস চলে যাওয়ার জন্য আমাদের একটা ভ্যাকসিনও লাগবে না। আমি শুধু চিকিৎসকদের কথার ওপর নির্ভর করি।’

প্রতিষেধক আবিষ্কারের অগ্রগতি নিয়ে এক প্রশ্নে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘ভ্যাকসিন নিয়ে আমার অনুভূতি অনেকটাই টেস্টের মতো। কোনো ভ্যাকসিন ছাড়াই এটা বিদায় নিতে যাচ্ছে। এটা দূর হবে এবং আমরা আর কখনো একে দেখতে পাবো না। আশা করি নির্দিষ্ট একটা সময় পর এটা চলে যাবে।’

ট্রাম্প আরো যোগ করেছেন, ‘কিছু ভাইরাস কিংবা ফ্লু এসেছিল যেগুলোর জন্য ভ্যাকসিন খোঁজা হচ্ছিল। ভ্যাকসিন পাওয়া যায়নি। কিন্তু তারপরও তারা (ভাইরাস) গায়েব হয়ে গেছে, আর কখনো দেখা দেয়নি। সবকিছুর মতো তারাও মারা যায়।’