সামনেই আসছে ভ্যালেন্টাইন্স ডে। কোথায় সেখানে নতুন প্রেমিক বা প্রেমিকার সন্ধান চলবে, তা না পেছন ছাড়ছে না প্রাক্তন। মানে প্রেমটা কেটে গিয়েও মন থেকে মানা যাচ্ছে না। অনেকেই তাদের অতীতের সম্পর্ক থেকে সামনে এগিয়ে যেতে সমস্যায় পড়েন। এই ধরণের মানুষদের জন্য এবারের ভ্য়ালেন্টাইন্স ডে-তে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস প্রদেশের সান আন্তোনিও চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ এক অভিনব সুযোগ নিয়ে এসেছে। সোজা কথায় প্রাক্তনকে চিড়িয়াখানার কোনও পশুর গ্রাসে তুলে দেওয়া যাবে।

না সরাসরি প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকা-কে বাঘের মুখে ঠেলে দিতে দিচ্ছে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ তা নয়। প্রেম দিবস উপলক্ষ্যে চিড়িয়াখানায় এসে যে কেউ একটি আরশোলাকে তাঁর প্রাক্তন-এর নাম দিতে পারবেন। পরে 'ক্রাই মি এ ককরোচ' বলে একটি অনুষ্ঠান করা হবে যেখানে সেই প্রাক্তনের নামধারি আরশোলাটিকে ওই ব্যক্তি কোনও পশুর মুখে তুলে দিতে পারবেন। এর জন্য খরচ করতে হবে মাত্র ৫ ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় ৩৫৬ টাকা।

আবার প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকা যদি সাপের মতো খারাপ ছোবল মারা স্বভাবের হয় তাহলে ২০ ডলারের বিনিময়ে প্রাক্তনের নামে একটি ইঁদুর পুষে তাকে একটি সাপকেই খাওয়ানো যাবে। আর ছেড়ে যাওয়া প্রেমিক বা প্রেমিকাকে চিড়িয়াখানার পশু খেয়ে ফেলছে এটা দেখার জন্য কষ্ট করে কাউকে চিড়িয়াখানায় উপস্থিত থাকতে হবে না। চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ পুরো ঘটনাটা ফেসবুক লাইভে লাইভ স্ট্রিম করবে। অর্থাৎ কলকাতায় বসেও যে কেউ সংস্থাকে টাকা দিয়ে এই দৃশ্য 'উপভোগ' করতে পারবে।

এছাড়া, সান আন্তোনিও চিড়িয়াখানা থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের একটি করে অনলাইন শংসাপত্র দেওয়া হবে, যা তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে পারবে, এমনকী সেই প্রাক্তনকে লজ্জা দেওয়ার জন্য ট্যাগ-ও করা যেতে পারে। আগ্রহী ব্যক্তিদের চিড়িয়াখানার ওয়েবসাইটের নাম নথিভুক্ত করাতে হবে। তবে প্রাক্তনের শুধু প্রথম নামটিই ব্যবহার করা হবে, পদবী নয়।