বাংলা সফরে এসে তার কর্মসূচি শুরু করে দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সবাপতি জেপি নাড্ডা। অন্ডাল বিমান বন্দর থেকে সরাসরি হ্যালিকপ্টারে কাটোয়ার পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়ার হেলিপ্যাডে পৌছে যান বিজেপি সভাপতি। সেখানে রাধা গোবিন্দ মন্দিরে প্রথম পুজো দেন নাড্ডা। তারপর সরাসরি যোগ দেন জগদানন্দপুরের সভায়। সেখান থেকে কৃষক সুরক্ষা অভিযান কর্মসূচির সূচনা করেন তিনি। একইসঙ্গে জানিয়ে দেন,'রাজ্যে মমতা সরকারের পতন নিশ্চিৎ ও বিজেপি সরকার গড়বে।' তৃণমূল কংগ্রেসকে একাধিক ইস্যুতে আক্রমণও করেন জেপি নাড্ডা।

সভা শেষে মধ্যাহ্নভোজ সারতে পৌছে যান জগদানন্দপুর গ্রামের কৃষক মথুরা মণ্ডলের বাড়িতে। সেখানেই মধ্যাহ্ন ভোজ সারবেন বলে পূর্ব নির্ধারিত ছিল। জেপি নাড্ডাকে স্বাগত জানাতে নতুন রূপে সাজানে হয়েছিল মথুরা মণ্ডলের বাড়ি। জেপি নাড্ডাকে স্বাগত জানাতে পেরে খুশি দিন আনা দিন খাওয়া পরিবার। কৃষক পরিবারে মাটিতে বসে ভাত, রুটি, সোনামুগের ডাল, শাক, আলুভাজা, ফুলকপি-পনিরের তরকারি, চাটনি, পাঁপড়, দই ও নলেন গুড়ের রসগোল্লা মধ্যাহ্নভোজ সারেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। তার সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ সারেন দিলীপ ঘোষ, কৈলীস বিজয় বর্গীয়রাও। রান্না খেয়ে ভালো লেগেছে বলেও মথুরা মণ্ডলের পরিবারকে জানিয়েছেন নাড্ডা।

মধ্য়াহ্ন ভোজের পর একাধিক কর্মসূচি রয়েছে জেপি নাড্ডার। বর্ধমান শহরে বিশাল রোজ শো রয়েছে তার। সেখানে সাধারণ মানুষের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করেবন তিনি। এছাড়াও বিকেলে দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে কোর কমিটির বৈঠক করবেন বিজেপি সভাপতি। বৈঠকে আলোচনা হততে পারে বিধানসভা নির্বাচনের রণকৌশবল নিয়েও। এছাড়াও বিকেলে কর্মসূচির শেষে সাংবাদিক বৈঠক করেবন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি।