ভোটের দিন সকাল থেকেই উত্তপ্ত গড়বেতা ও শালবনীও। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অশান্তির অভিযোগ আসে বারবার। সকালেই শীলবনীতে আক্রান্ত হন সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থী সুশান্ত ঘোষ। অভিযোগের তির শাসক দলের দিকে। এবার ভোটারদের মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। তৃণমূলকে ভোট না দেওয়ার অভিযোগে সাধারণ ভোটারদের মারধরের অভিযোগ ওঠে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

গড়বেতা বিধানসভার হেতোশোলে ২২৬ নম্বর বুথে এই ঘটনা ঘটে। অভিযোগ, ভোট দিয়ে ফেরার পথে হামলা। তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভোটারদের মারধরের অভিযোগ। কেন ভোট তাদের দেওয়া হয়নি, এই বলে মারধর। ঘটনায় বশ কয়েক জন ভোটার আহত হন। গুরুতর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার জেরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে কেন্দ্রীয় বাহিনী। হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসক দল।

এর আগে সকালে ভেলাইয়া গ্রামের একটি বুথে যান সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী সুশান্ত ঘোষ। বুথ থেকে  সুশান্ত ঘোষ বেরোনোর পরই তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ  শুরু হয়।  বিক্ষোভকারীরা তৃণমূল কর্মী-সমর্থক বলে অভিযোগ। তাঁর গাড়িতে হামলা চলে। বুথের ভেতরে ছিলেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। যেখানে বিক্ষোভের ঘটনা ঘটে, সেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা ছিলেন না। বিক্ষোভের মুখে সুশান্ত ঘোষকে তাঁর নিরাপত্তা কর্মীরা বের করে নিয়ে যান।  ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।