আর কিছু সময়ের অপেক্ষা। তারপরই সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। এছাড়াও শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গ যোগ দিতে চলেছেন একাধিক তৃণমূল বিধায়ক। ইতিমধ্যেই মেদিনীপুরের মাটিতে পা রেখেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। অপরদিকে মেদিনীপুরের সভায় যোগ দেওয়ার জন্য বাড়ি থেকে রওনা দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারীও। পাশাপাশি কোলাঘাটের গেস্ট হাউসে একত্রিত হয়েছেন দলত্যাগি বিধায়করা। সব মিলিয়ে শীতের শনিবাসরীয় দুপুরে তরতরিয়ে চড়ছে বাংলার রাজনীতির পারদ।

মেদিনীপুরের সভায় যোগ দেওয়ার আগে একাধিক কর্মসূচি রয়েছে  অমিত শাহের। প্রথমে  সিদ্ধেশ্বরী মন্দিরে পুজো দেন তিনি। এরপর তিনি যাবেন ক্ষুদিরাম বসুর মাসির বাড়িতে । সেখানে ক্ষুদিরাম বসুর প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি তাঁর পরিজনদের সংবর্ধনা দেওয়ার কথা রয়েছে। এরপর অমিত শাহ যাবেন মহামায়ার মন্দিরে। সেখানে পুজো দেবেন অমিত শাহ। দুপুরে বেলিজুড়ে গ্রামের কৃষক পরিবারের মধ্যাহ্ন ভোজন সারবেন অমিত শাহ। কৃষক সনাতন সিং-এর বাড়িতে ভাত, ডাল, রুটি, পটল, উচ্ছে, ঢেঁড়স, শুক্ত, ফুলকপির তরকারি, দই, মিষ্টি, চাটনি, পাঁপড় খাবেন। 

তারপর মেদিনীপুর কলেজ গ্রাউন্ডে সভা অমিত শাহের। সেই সভাতেই শুভেন্দু অধিকারী-সহ অন্তত ২০ জন বিধায়ক বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন বলে সূত্রের খবর। সংখ্যাটা বাড়তেও পারে। তালিকায় সিপিএম এবং কংগ্রেসের বিধায়করা থাকবেন বলেই জানা গিয়েছে। ইতমধ্যেই বিধায়কদের কনভয় রওনা দিয়েছে সভার উদ্দেশ্যে। কনভয়ে একাধিক এমএলএ ও এমপিরা রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ফলে মহাচমকের জন্য আর কিছুক্ষণের অপেক্ষায় বঙ্গবাসী।