মেদিনীপুরের সভায় যোগ দিতে ইতিমধ্যেই পৌছে গিয়েছেন অমিত শাহ। সেখানেই শুভেন্দু  অধিকারী  সহ একাধিক সাংসদ ও বিধায়ক সহ শাসক দলের নেতা-কর্মীরা যোগ দিতে চলেছেন বিজেপিতে। মেদিনীপুরের সভায় যোগ দেওয়ার আগে একাধিক কর্মসূচি রয়েছে  অমিত শাহের। প্রথমে  সিদ্ধেশ্বরী মন্দিরে পুজো দেন তিনি। মেদিনীপুরের সভায় যোগ দেওয়ার আগে একাধিক কর্মসূচি রয়েছে  অমিত শাহের। প্রথমে  সিদ্ধেশ্বরী মন্দিরে পুজো দেন তিনি। এরপর তিনি যান ক্ষুদিরাম বসুর মাসির বাড়িতে । সেখানে ক্ষুদিরাম বসুর প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি তাঁর পরিজনদের সংবর্ধনা দেওয়ার হয়। এরপর অমিত শাহ যান মহামায়ার মন্দিরে। সেখানে পুজো দেন অমিত শাহ।

এরপর সূচি অনুযায়ী দুপুরে বেলিজুড়ে গ্রামের কৃষক পরিবারের মধ্যাহ্ন ভোজন সারেন অমিত শাহ। কৃষক সনাতন সিং-এর বাড়িতে স্যালাড, রুটি, লাউ দিয়ে মুগ ডালটা, ঢ্যাঁড়শ ভাজা, পটল ভাজা, শুক্তো, পোস্ত দিয়ে খসলা শাক, ভাত, উচ্ছে ভাজা, ফুলকপির তরকারি, চাটনি, টক দই, পাপড়, মিষ্টি দিয়ে মধ্যাহ্নভোজ সারেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী। সঙ্গে ছিলেন রাজ্যে বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলীস বিজয় বর্গীয়, রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

এরপর মেদিনীপুর কলেজ গ্রাউন্ডে সভা অমিত শাহের। সেই সভাতেই শুভেন্দু অধিকারী-সহ অন্তত ৯ জন বিধায়ক, একজন সাংসদ সহ  বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছেন। সংখ্যাটা বাড়লেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না বলে দাবি বিজেপি সূত্রে। তালিকায় সিপিএম এবং কংগ্রেসের বিধায়করা থাকবেন বলেই জানা গিয়েছে। ফলে রাজ্যে  বিধানসভা নির্বাচনের আগে আজ মেদিনীপুরে অমিত শাহের সভা বিশেষভাবে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।