শনিবার যখন জেপি নাড্ডা বর্ধমানে সভা পদযাত্রা করছেন। সেই সময় বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের গড়ে দাঁড়িয়ে রাজ্য কয়েকজন নেতাকে তীব্র আক্রমণ করেছিলেন তৃণমূল সাংসদ অর্জুন সিং। অর্জুন সিং, শুভেন্দু অধিকারী সহ দিলীপ ঘোষকে একযোগে আক্রমণ করেন তিনি। অর্জুনের গড়ে দাঁড়িয়ে তাঁর হাত ভেঙে ফেলার হুমকি দিয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ।

আরও পড়ুন-বর্ধমানে বিজেপির পাল্টা রোড শোয়ে শক্তি প্রদর্শনে মরিয়া তৃণমূল, পুরুলিয়ায় মহামিছিলে শুভেন্দু

শনিবার ব্যারাকপুরের জগদ্দলে সবা করেছিলেন শ্রীরামপুরের তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্য়ায়। সেখানে দাঁড়িয়ে অর্জুন সিংকে নিশানা করে তিনি বলেন, ''হুগলি আমি কারও দাদাগিরি বরাদাস্ত করব না। ওখানে দাদাগিরি দেখাতে গেলে হাত ভেঙে দেব''। এরপরই, রবিবার কল্য়াণের মন্তব্যের পালটা জবাব দেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। তিনি বলেন, ''আমি আজই শ্রীরামপুরে যাব, দেখি কে কার হাত ভাঙে। সরকারে থাকলে অনেক কিছুই বলা যায়''।

আরও পড়ুন-নয়া কৃষি আইন বাতিল,'কোম্পানী রাজের বিরুদ্ধে' ৫ বাম সংগঠনের প্রতিবাদ

একুশের নির্বাচনে নবান্ন দখলকে পাখির চোখ করেছে বিজেপি। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে প্রচার করতে ছুটে বেড়াচ্ছেন শাসক ও বিরোধী দলের নেতারা। সেইসঙ্গে আরও আক্রমণাত্মক হচ্ছে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের পাল্টা। নতুন বছরের শুরু থেকে যখন সব দল প্রচারে ঝড় তুলেছে। ততই আক্রমণাত্মক হচ্ছেন শাসক ও বিরোধী দলেন নেতারা।