তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থনে প্রচারে রাজ্যে এসেছেন অমিতাভ বচ্চন ঘরনী জয়া বচ্চন। বাংলার সঙ্গে আত্মিক যোগাযোগ রয়েছে তাঁর। তিনিও বাঙালি। আর সেই কারণেই তৃণমূলের হয় জয়া বচ্চনের ব্যাটিং কিছুটা গুরুত্বপূর্ণ বলেও মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। প্রথম দফায় তিনি টলিগঞ্জে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অরূপ বিশ্বাসের সমর্থনে ভোট প্রচার করেন। এই কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। আর জয়া বচ্চনের এই সফর নিয়ে তিনিও মুখ খুলেছেন। 

স্বামী-স্ত্রীর যৌথ সম্পত্তির পরিমাণ ৪ কোটি, হলফনামায় জানালেন চুঁচুড়ার বিজেপি প্রার্থী লকেট ...

হুগলি থেকে বাংলার সঙ্গে দিল্লি দখলের বার্তা, নির্বাচনী এজেন্ট নিয়ে স্পষ্ট নির্দেশ মমতার ...

বাবুল সুপ্রিয় বলেন, 'জয়া বচ্চন বিজেপির বিরুদ্ধে বলবেন, কিন্তু আমার সম্পর্কে কিছুই বলছেন না।' তাঁর সঙ্গে সমাজবাদী পার্টির সাংসদ জয়া বচ্চনের সম্পর্ক ভালে বলেও দাবি করেন বাবুল সুপ্রিয়। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা বাবুল সুপ্রিয় জয়া বচ্চনকে এই রাজ্যে স্বাগতও জানিয়েছেন। তিনি বলেন, জয়া বচ্চনের পরিবারের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক রয়েছে বলে জানিয়ে বাবুল বলেন এ বিষয়ে তিনি কোনও মন্তব্য করবেন না। তবে জয়া বচ্চন তাঁকে খুব ভালোমত জানেন বলেও দাবি করেছেন বাবুল। 

অন্যদিকে অরূপ বিশ্বাসের হয়ে ভোট প্রচারে জয়া বচ্চন সামিল হওয়ায় খোঁচা দিতে ছাড়েননি বাবুল। তিনি বলেন, আমিতাভ বচ্চন ও জয়া বচ্চন যখনই কলকাতায় আসেন তখনই দেখেন অরূপ বিশ্বাস ফুল  আর মিষ্টি নিয়ে তাঁদের স্বাগত জানাচ্ছেন। কিন্তু অরূপ বিশ্বাস যে টালিগঞ্জ এলাকা থেকে টাকা তোলেন, সেই তথ্য জয়া বচ্চনের কাছে নেই। তাঁর কাছে যদি সেজাতীয় কোনও তথ্য থাকত তাহলে তিনি কখনই অরূপ বিশ্বাসের হয়ে প্রচার করতেন না বলেও দাবি করেন বাবুল সুপ্রিয়। 


অন্যদিকে এই রাজ্যে ভোট প্রচারে এসে জয়া বচ্চন জানিয়েছেন তিনি সমাজবাদী পার্টির পক্ষ থেকেই এই রাজ্যে এসেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়ানোর জন্য। বিজেপির বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত শক্ত করারই তাঁর মূল উদ্দেশ্য বলেও জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরও বলেন তাঁর নেতা অখিলেশ যাদব তাঁকে এখানে পাঠিয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তিনি শ্রদ্ধা করেন। কারণ তিনি  একা একাই স্বৈরতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন।