আজ তাঁর প্রাক্তন নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেশ করেছেন। তিনি মনোনয়ন দাখিল করেবন শুক্রবার। তার আগেই প্রাক্তন নেত্রীর উদ্দেশ্যে ক্ষোভ উগরে দিলেন নন্দীগ্রামের বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। জয়ের ব্যাপারে এখন থেকেই একশো নয় ২০০ শতাংশ আশাবাদী শুভেন্দু জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর সমস্ত আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছেন। সংবাদ সংস্থা এএনআইএনআরসি-সিএএ (NRC-CAA) নিয়ে তাঁর বিরুধিতার প্রভাব ভোট বাক্সে পড়ে বলেও মনে করেন তিনি। অনেকটা অমিত শাহর সুরে সুর মিলিয়ে শুভেন্দু করেন ঘুষপেটিয়াদের সমর্থনের জন্য রাজনীতি করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ১০ বছর দল উন্নয়নমূলক কোনও কাজ করেনি বলেও অভিযোগ করেন তিনি। অথচ দলের তৈরি করা একটি রিপোর্ট কার্ড নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন শুভেন্দু। 

রাজ্যের উন্নয়নের জন্য ডবল ইঞ্জিন প্রয়োজন বলেও জানিয়েছে শুভেন্দু অধিকারী। তিনি আরও বলেন  বাকি বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির মত এই রাজ্যেও মোদীর নেতৃত্বেই রাজ্যে উন্নয়ন সম্ভব। সোনার বাংলা তৈরি হবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। একই সঙ্গে শুভেন্দু রাজ্যে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের আর্জি জানিয়েছেন। 

শুভেন্দু বলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দশ বছর ও তার আগে বামেদের ৩৪ বছর মোট ৪৪ বছর ধরে রাজ্যে কোনও উন্নয়ন হয়নি। কেন্দ্র বিরোধিতা করেই কাটিয়ে গেছে আগের সরকারগুলি। কিন্তু এই বিরোধিতার রাজনীতিতে আখেরে বাংলার কোনও লাভ হয়নি। পিছিয়ে গেছে বাংলা। বর্তমানে বাংলা বেকার সংখ্যা বেড়েছে, রাজ্যে কোনও শিল্প নেই। সব মিলিয়ে বাংলার পরিস্থিতি রীতিমত সংকটজনক বলেও এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তিনি।