বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা দিল্লি থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় জাঁকজমক পূর্ণ সভা করছেন। তখন, বাংলার বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন অমিত শাহর সপ্তরথীরা। তাঁদের মধ্যে একজন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী সঞ্জীব কুমাল বালিয়ান। সোমবার তিনি মুর্শিদাবাদ সফরে যান। সেখানে গিয়ে তৃণমূলকে কার্যত চ্য়ালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন।

আরও পড়ুন-'নির্বাচনী আচরণ বিধি লাগু হলেই অত্যাচার বন্ধ হবে', নন্দীগ্রামে প্রতিবাদ সভায় বললেন শুভেন্দু

সোমবার আচমকা ঝটিকা সফরে ইন্দো-বাংলা সীমান্তের লালগোলা শহরে এসে কেন্দ্রীয় মৎস্য প্রতিমন্ত্রী সঞ্জীব কুমার বালিয়ান। মুখ্যমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তিনি বলেন, দু-মাসের মধ্যে তৃণমূল সরকার রাজ্য থেকে ধুয়ে মুছে সাফ হবে'। পাশাপাশি তিনি আরোও বলেন," কেন্দ্রের নজরে রয়েছে মুর্শিদাবাদ। গরু পাচারের সিন্ডিকেট থেকে শুরু করে, তার সঙ্গে যুক্ত মাথাদের কান টেনে এক এক করে ধরে প্রকাশ্যে এনে পর্দা ফাঁস করা হবে"।

আরও পড়ুন-'নির্বাচনী আচরণ বিধি লাগু হলেই অত্যাচার বন্ধ হবে', নন্দীগ্রামে প্রতিবাদ সভায় বললেন শুভেন্দু

মুর্শিদাবাদের বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে মানুষের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী। মুসলিম অধ্যুষিত লালগোলার মানুষের মন পেতে কেন্দ্রীয় সরকারের একাধিক প্রকল্প নিয়ে তিনি কথা বলেন। বাসিন্দাদের কাছ থেকে তিনি জেনে নেন, তাঁরা সেইসব প্রকল্পের সুবিধা তারা পেয়েছেন কি না। বিলি করেন কেন্দ্রীয় সরকারের জনকল্যাণ মূলক কর্মসূচির লিফলেট।এদিকে বিজেপি নেতা কর্মীদের উপর যেভাবে অত্যাচার করা হচ্ছে সে ব্যাপারে রাজ্য সরকারকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন  তিনি । পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে শ্রী বালিয়ান বলেন , “ রাজ্যে তৃণমূল সরকার সিণ্ডিকেট রাজ কায়েম করেছে ।দু মাসের মধ্যে জনতা এই সরকার কে ফেলে দেবে। আর বিজেপি সীমন্তের মুর্শিদাবাদের মানুষের মাঝে বিকাশের সঙ্গে সঙ্গে শান্তি স্থাপন করবে।”