বিশ্বভারতীর শতবর্ষ অনুষ্ঠান। উপস্থিত থাকলেন আচার্য রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ঐতিহ্যবাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালে ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়কেও। কিন্তু সেখানে হাজির থাকলেন না মুখ্যমন্ত্রী। আজ সকালে বিশ্বভারতীর শতবর্ষ নিয়ে একটি ট্যুইচ করেই বিরত থাকলেন তিনি।

আরও পড়ুন-'কবি গুরুর হাত ধরেই আত্মনির্ভর ভারতের সূচনা', বিশ্বভারতীতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

কয়েকদিন আগেই বিশ্বভারতী ঘুরে এসেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সেখানে বিশ্বভারতীর নানান কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার শতবর্ষে অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীও। কিন্তু বিশ্বভারতীর আবেদন ফেরালেন মমতা। এদিন সকালে ট্যুইট করেন মুখ্যমন্ত্রী। ট্যুইটে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গান উদ্ধৃত করে তিনি লিখেছেন, ''বিশ্বসাথে যোগে যেথায় বিহারো। সেইখানে যোগ তোমার সাথে আমারও''। আবার, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের চিন্তা ও দর্শনকে সংরক্ষণ করার কথাও বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

 

 

আরও পড়ৃুন-শুভেন্দুর দল বদলের জবাব, বিধায়কহীন নন্দীগ্রামে সভা করবেন তৃণমূল নেত্রী

শান্তিনিকেতনে গিয়ে বোলপুরে রোড শো করেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সেই রোড শোয়ে প্রায় লক্ষাধিক মানুষ এসেছিলেন বলে দাবি করেছে বিজেপি। তারই পালটা হিসেবে বোলপুরে একই জায়গায় রোড শো করবেন তৃণমূল নেত্রী। ২৮ ডিসেম্বর  বোলপুরে পৌঁছবেন মুখ্যমন্ত্রী। ২৯ ডিসেম্বর রোড শো করবেন তিনি।