কয়লাকাণ্ডের হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ লালা। কয়লাকাণ্ডে মূল অভিযুক্ত অনুপ মাজি ওরফে লালা এবার কয়লাকাণ্ডে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের রায়কে রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছে লালা। বুধবারই শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে। 

 

আরও পড়ুন, আজ মনোনয়ন পেশ মমতার, পুরীর জগন্নাথ মন্দিরে ও কালীঘাটের বাড়িতে সারা দুপুর চলবে পুজো 

 


 


কয়লাকাণ্ডে মূল অভিযুক্ত অনুপ মাজি ওরফে লালা। এদিকে এখনও লালার নাগাল পায়নি তদন্তকারীরা। কয়লাকাণ্ডের তদন্তে কার্যত সিবিআইয়ের এক্তিয়ার নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে মূল অভিযুক্ত অনুপ মাজি ওরফে লালা। তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে সিবিআই। এরপরেই সেই অভিযোগ খারিজের আর্জি জানিয়ে  কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় লালা। এদিকে সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায় সিঙ্গল বেঞ্চ। আদালত সাফ জানিয়েছে, কয়লাকাণ্ডে তদন্ত চালিয়ে নিয়ে যেতে পারবে সিবিআই। তবে পশ্চিমবঙ্গের যে এলাকা রেলের আওতাহীন নয়, সেখানে তল্লিশি করতে গেলে রাজ্য়ের অনুমতি বাধ্যতামূলক। কিন্তু রাজ্যের এক্তিয়ারভুক্ত এলাকায় কাউকে তলব-কারও বাড়িতে তল্লশি চালাতে গেলে সেক্ষেত্রে অনুমতি লাগবে না, সে কথা আগেই জানিয়েছে হাইকোর্ট। 

 

 

আরও পড়ুন, নন্দীগ্রামে দাঁড়ানোর কারণ কী, আজ সব খোঁচার উত্তর দিলেন মমতা 

 

অপরদিকে হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের এই রায়ের পরে পাল্টা তৎপরতা চলে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার অন্দরেও। মামলা এগোয় হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে। সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ে স্থগিতাদেশ জারি সিবিআইকে রাজ্য়ের এক্তিয়ারভুক্ত তল্লাশির অনুমতি দেয় ডিভিশন বেঞ্চ। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছে লালা।
 এদিকে হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের এই রায়ের পর পাল্টা তৎপরতা শুরু হয় সিবিআই-র অন্দরেও। মামলা গডায় হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে। সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ে স্থগিতাদেশ জারি সিবিআইকে রাজ্যের এক্তিয়ারভুক্ত তল্লাশি অনুমতি দেয় ডিভিশন বেঞ্চ। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে এবার চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে  মামলা করেছে লালা। এবং বুধবারই এর শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে।